Breaking News

‘এই প্রথম ক’রোনার ভ্যা’কসিন তৈরির দাবি ইতালির’

বৈশ্বিক ম’হামা’রী কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধক তৈরির দাবি

করেছেন ইতালির গবেষকরা।মঙ্গলবার সায়েন্স টাইমস ম্যাগাজিনে দেয়া

বিবৃতিতে গবেষকরা ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের দাবি করেছেন।

 

তারা বলেছেন, রোমের স্প্যালানজানি হাসপাতালে বিশেষজ্ঞরা ক’রোনার

প্রতিষেধক তৈরি করেছেন। এটি ইঁদুরের শরীরে প্রয়োগ

করে সাফল্য পাওয়া গেছে। এটি মানব দেহেও প্রয়োগ করলে সফলতা পাওয়া যাবে।

গবেষকরা বলছেন, ইঁদুরের দেহে ক’রোনাভা’ইরাসেের অ্যান্টিবডি তৈরি

করার পর তা মানবকোষেও কাজ করেছে। ইঁদুরের শরীরে

তৈরি ওই অ্যান্টিবডি মানবকোষে ক’রোনাভা’ইরাসেকে নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম হয়েছে।

 

তাতে বিজ্ঞানীরা বলছেন, মানুষের শরীরে তাদের তৈরি এ প্রতিষেধক ভালোভাবেই কাজ করবে।

তিনি জানান, ইতালির বিজ্ঞানীদের তৈরি ভ্যাকসিন মানুষের শরীরে যে কার্যকর হবে,

তার সংকেত মিলেছে স্পালানজানি হাসপাতালেই। তিনি মনে করেন,

 

এটিই বিশ্বের প্রথম ক্যান্ডিডেট ভ্যাকসিন ( যে ভ্যাকসিন স’রকারি ছাড়পত্রের অপেক্ষায়),

যা মানুষের শরীর থেকে ক’রোনাভা’ইরাসেকে দূরে রাখতে সক্ষম।

ইতালির গবেষক দলটি মনে করছে, ভ্যাকসিনটি এ গ্রীষ্মেই মানব শরীরে

পরীক্ষামূলক করার ছাড়পত্র পাওয়া যাবে।

ইতালিয় সংবাদ সংস্থা এএনএসএ প্রকাশিত তথ্য যদি সত্যি হয়,

তাহলে সম্ভবত ইতালি থেকেই প্রথম ক’রোনা ভ্যাকসিন আসতে

যাচ্ছে আ’ক্রান্ত দেশগুলোর কাছে। লুইগি আরিসিচিও আরও জানিয়েছেন,

 

এ মুহূর্তে তাদের গবেষণা প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তাদের প্রযুক্তিগত

দিকে সাহায্য করছে মা’র্কিন সংস্থা লিনারেক্স। বর্তমানে জার্মানি,

যুক্তরাষ্ট্র, চীনসহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে ক’রোনাভা’ইরাসেের প্রতিষেধক

তৈরির গবেষণা চলছে।

 

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা ভ্যা’কসিন তৈরির চেষ্টা চা’লিয়ে যাচ্ছেন।

আগামী সেপ্টেম্বরে এই ভ্যাকসিন বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের

ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানী। তার আগেই ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের ঘোষণা দিল ইতালি।

সূত্র: সিএনবিসি, টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Check Also

অক্সিজেনের জন্য অন্য দেশের ওপর নির্ভরশীল নয় বাংলাদেশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দেশে এই মুহূর্তে কোনো অক্সিজেন সং’ক’ট নেই। আমাদের দেশের অক্সিজেন ব্যবস্থাপনা অন্য কোনো দেশের ওপর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *