কাঁ-টা হচ্ছে বড় হাতির দাঁত, যা বিক্রি হয় প্রচুর টাকায়, ভাইরাল হলো ভিডিও!

বর্তমানের এই বাজারে আমরা বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র দেখে থাকবো । কিন্তু আপনারা হয়তো জানেন যে জিনিস

পত্রের দাম বর্তমান বাজার অধিক পরিমাণ সেটি হল হাতির দাঁত ।। হাতির দাঁত মিউজিয়ামে রাখা থেকে শুরু করে

 

বিভিন্ন ধরনের অলংকার বা শিল্পকলা তৈরিতে কাজে লাগে । কিন্তু হাতির দাঁত অত্যন্ত দু-ষ্প্রা-প্য জিনিস । কারণ

এতবড় আকৃতির একটি প্রা’ণীর থেকে দাঁত নিয়ে আসবে এমন সা-হ-স ব্যক্তি কে আছে? তাই বর্তমানে বাজারে

 

হাতির দাঁত অ-ত্য-ন্ত দু-ষ্প্রা-প্য । সম্প্রতি একটি ভিডিওতে দেখানো হয়েছে যে একটি হাতির দাঁত সংগ্রহ করছে

সেখানকার গ্রামবাসীরা কিন্তু কেন জানাও আজকের এই প্রতিবেদনে । হাতি দক্ষিণ ভারতের বেশি দেখা যায় । এবং

 

আমরা যেমন বাড়িতে গরু-ছাগল ইত্যাদি পুষে রাখি । দক্ষিণ ভারতের মানুষেরা বাড়িতে হাতি পুষে রাখেন । কারণ

তাদের কাছে অত্যন্ত বি-শ্ব-স্ত একটি প্রা’ণী হল হাতি । যা তাদের কোনদিন ক্ষ-তি করেন না । কিন্তু যে ভিডিওটি

 

সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সেটি দক্ষিণ ভারতে কোন ভিডিও নয় । ভিডিওটি দেখে যতদুর মনে হচ্ছে সেটা অন্য কোন

দেশের একটি ভিডিও হতে পারে । সেখানকার এলাকায় প্রচলিত একটি রীতি নীতি অনুসারে বছরের একটি বিশেষ

 

দিনে হাতি থেকে কিছু টা দাঁত কে-টে নেওয়া হয় এবং সেই দাঁতকে পরবর্তী ক্ষেত্রে পুজো করে বিক্রি করা হয় ।।

আর সেই চিত্র ফুটে উঠল এই ভিডিওতে ।এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে একটি হাতিকে বড় জায়গাতে চে-ঞ্জ এর

 

সাহায্যে বেঁ-ধে রাখা হয়েছে ।এবং তার সামনে রাখা হয়েছে প্রচুর পরিমাণে খাবার । এর পাশাপাশি হাতির বড় বড়

দাঁত থেকে নির্দিষ্ট পরিমাপে একটি বিশেষ অংশ কে-টে নেওয়া হচ্ছে । সেই হাতিটিকে এবং সেই ঘ’টনাটা দেখার

 

জন্য ভিড় করেছে গ্রামবাসীরা ।যদিও পরবর্তী ক্ষেত্রে জানা যায় যে এটি তাদের গ্রামের প্রচলিত একটি রীতিনীতি ।

যার দ্বারা বছরে একটি নির্দিষ্ট দিনে হাতের থেকে দাঁত কে-টে নেওয়া হয় স্বল্প পরিমাণে । পরবর্তী ক্ষে-ত্রে

 

সেগু’লিকে পুজো করে বিক্রি করে দেওয়া হয় পর্যটকদের কাছে ।যার ফলে মো’টা অংকের টাকা পাওয়া যায় ।

ইতিমধ্যে সেই ভিডিওটি এত পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে যে খুব অল্প সময়ের মধ্যে দেখে ফে’লেছে অনেকে ।

কারণ এই ধরনের ঘ’টনা সচরাচর দেখা যায় না ।

 

 

Check Also

নিঃস্ব হওয়ার পথে ভারত!

জাতিসংঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফ বলছে, ভারতে প্রতি সেকেন্ডে চারজন করে নতুন করো’না রোগী শনা’ক্ত হচ্ছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *