ঘোড়ায় চড়ে অফিসে যেতে চান, অনুমতি চেয়ে চিঠি

করোনা মানুষের জীবনপ্রবাহ বদলে দিয়েছে। বদলে দিয়েছে আচার আচরণ, রুচিবোধ।

বদলে দিয়েছে অভ্যাস। এই অভ্যাসের একটি উদাহরণ অবাক করবে পাঠককে। ঘোড়ায়

 

চড়ে অফিসে আসার অনুমতিও চেয়েছে এক ব্যক্তি। ভারতের মহারাষ্ট্রের সতীশ পাবারাও

দেশমুখ অদ্ভুত কাণ্ড করেছেন। তিনি স্থানীয় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অ্যাসিস্ট্যান্ট

 

অ্যাকাউন্ট অফিসবার। সম্প্রতি করোনা সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে ঘোড়া নিয়ে অফিসে

আসার অনুমতি চেয়েছেন সতীশ। এর পক্ষে যুক্তিসংগতও দেখিয়েছেন তিনি। শুধু করোনার

 

ভয় নয়, অনেক দিন ধরে তিনি পিঠের ব্যথায় কাবু। তাই মোটরসাইকেল চালিয়ে অফিসে আসতে

পারবেন না। আবার গাড়ি কেনার সামর্থ্যও তার নেই। তাই ঘোড়া নিয়ে আসতে চান তিনি।

 

অফিসে ঘোড়া রাখার অনুমতিও চেয়েছেন সতীশ। অফিস জবাবে কী বলেছে জানা যায়নি।

তবে চিঠিটি অনলাইনে ফাঁস হতেই ভাইরাল হয়ে যায়। শুরু হয় নানান ধরনের আলোচনা।

 

কিছুদিন আগে বারাণসীর এক আইনজীবী ঘোড়া চালানো শেখার অনুমতি চেয়ে পুলিশকে চিঠি দেন

সেখানে জানান, তেলের দাম যে হারে বাড়ছে তার পক্ষে ২০ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে অফিস করা

অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

 

 

Check Also

উইঘু হ’ত্যাকা’ণ্ড: চীনের পক্ষে নরম সুর নিউজিল্যান্ডের

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের উইঘুরদের ওপর যে নি’র্যা’তন চালানো হচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক মহলে দাবি করা হচ্ছে, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *