চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার আবেদন করবেন বেগম খালেদা জিয়া

বর্তমানে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। সেখানে তার বিভিন্ন

পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। এই পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে বৃহস্পতিবার তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়ার কথা। ১০ সদস্যের

 

একটি মেডিকেল বোর্ড বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার তত্ত্বাবধান করছেন। তাদের পক্ষ থেকে একটি সম্মিলিত

বিবৃতি বৃহস্পতিবারে দেওয়া হতে পারে। তাতে বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন এবং উন্নত

 

চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নেয়ার সুপারিশ করা হতে পারে বলে আভাস পাওয়া যাচ্ছে। উল্লেখ্য যে, বেগম

খালেদা জিয়াকে দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে গত ২০১৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান। দীর্ঘ দুই বছরের

 

বেশি সময় কারাভোগের পর গত বছরের মার্চ মাসে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুকম্পায় বেগম খালেদা জিয়া প্রথমে ছয়

মাসের জন্য জামিনে মুক্ত হন। তারপর থেকে তার জামিনের মেয়াদ বাড়ছে। তৃতীয়বারের মতো জামিনের মেয়াদ

 

বৃদ্ধি করা হয়েছে বেগম খালেদা জিয়ার। এরকম বাস্তবতায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের শর্ত অনুযায়ী বাসায়

চিকিৎসা নিয়েছেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে তার করোনায় আক্রান্ত হওয়া এবং এরপর এভারকেয়ার হাসপাতালে

 

ভর্তি হওয়ার পর তার অসুস্থতা নিয়ে গুঞ্জন তৈরি হয়েছে। বেগম খালেদা জিয়া চিকিৎসক দলের অন্তত দু`জন

সদস্য বলেছেন যে, বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও তার দীর্ঘ মেয়াদী কিছু কিছু রোগ

 

রয়েছে এবং এই রোগগুলোর উন্নত চিকিৎসা দরকার। তারা বলেন, যেমন তার আর্থ্রাইটিসের সমস্যা রয়েছে।

আর তীব্র ব্যথার কারণে তিনি একা একা হাঁটতে চলতে পারেন না। এছাড়া তার অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস রয়েছে,

 

উচ্চরক্তচাপ রয়েছে। এসমস্ত রোগের দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা দরকার এবং তার ফিজিওথেরাপি দরকার।

আর এইসবগুলো করতে গেলে বেগম জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নেয়া দরকার।

 

চিকিৎসক দলের একজন বলেছেন যে, তার যে চিকিৎসাগুলো সবই লন্ডনে বা বিদেশে হয়েছে অতীতে। আর এ

কারণেই বিদেশে তার উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা দরকার। বেগম খালেদা জিয়ার পরিবার সূত্রে জানা গেছে যে,

মেডিকেল বোর্ডের এই মতামত তারা সরকারের কাছে দেবেন এবং সরকার নিশ্চই সেই বিবেচনা করবে।

 

 

Check Also

ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাওয়া যাচ্ছে: কাদের

ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাওয়া যাচ্ছে বলে আশঙ্কা কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *