ঢাকায় মাত্র ৫০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে গরুর মাংস!

প্রতিদিনই বাড়ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। আকাশ ছোঁয়া দামে হাঁসফাঁস মধ্য ও নিম্নবি’ত্তদের

জীবন। তবে এমন দিনেও খোঁজ মিলেছে মাত্র ৫০ টাকায় গরুর মাংস বিক্রির। তাও আবার রাজধানীর

 

মিরপুরের মিরপুর-১২ নম্বরের ই- ব্ল’কের ৩৩ নম্বর সড়কের পশ্চিম দিকে বিহারি পট্টিতে। সেখানে

গেলেই চোখে পড়বে ‘ভাতিজা শাহিদ ও শরিফের দোকান’ নামের একটি দোকানের। প্রতিদিন সকাল

 

৮টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত চলে বেচাকেনা। মূলত গরু ও মুরগির মাংস বিক্রি করেন তারা। জানা গেছে,

শাহিদ ও শরিফ সাত ভাই ও এক বোন। সঙ্গে রয়েছেন বাবা ও মা। বসবাস বিহারী পট্টিতেই। বড় দুই ভাই

 

বয়সে কিশোর হলেও সংসারের হাল তারাই ধরেছেন। দোকানটিতে যে কোনো পরিমাণে মাংস বিক্রি করা

হয়। চাইলে ৫০ টাকায়ও নেওয়া যাবে গরুর মাংস। কেউ চাইলে যে কোনো অংকের টাকায় কলিজা বা

 

মুরগির মাংসও কিনতে পারেন। দুই ভাইয়ের নিজেদের পরিবারের সদস্য সংখ্যা বেশি হলেও গরিব ও

খে’টে খাওয়া মানুষের প্রতি রয়েছে মানবি’কতা। এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে শরীফ বলেন, যাদের মাংস

 

খেতে খুব ইচ্ছে করে কিন্তু দাম বেশি হওয়ায় কিনতে পারেন না মূলত তারাই এখানে মাংস কেনেন। ১৫

বছর ধরে দোকান এভাবেই চলছে। আগে বাবা চালাতও, এখন আমরা চালাই। শরিফ আরো বলেন, যে

 

কেউ যে কোনো পরিমাণে মাংস কিনতে পারেন। এতে তাদের লাভ হয় না। কারণ এসব মাংসে তারা হার

দেন না। তবুও গরিব মানুষের জন্য তারা এ ব্যবস্থাটি রেখেছেন। প্রতিদিন এক বৃদ্ধ লোক নিয়মিত গরুর

 

মাংসের ক্রেতা। তবে তিনি ৫০ টাকার মাংস কেনেন। সে মাংসের টুকরা ছোট ছোট করে কে’টে

দেন শরিফ। এভাবেই কিছু ক্রেতার কাছে মাংস বিক্রি করেই নাকি তিনি তৃপ্তি পান।

 

 

Check Also

কবরে তো সম্পদ যাবে না, মাত্র সাড়ে তিন হাত জায়গা: প্রধানমন্ত্রী

অনেক সম্পদ থাকার পরও আরও চাই স্বভাবের মানুষগুলোর সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মরলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *