Breaking News

ভারতের অবস্থা দেখে মন গলল যুক্তরাষ্ট্রের, এগিয়ে আসছে অন্যরাও

অক্সিজেনের অভাবে দমবন্ধ হয়ে আসা ভারতের অবস্থা দেখে অবশেষে মন গলল যুক্তরাষ্ট্রের। বেশ কিছুদিন বন্ধ

রাখার পর দেশটিতে আবারও টিকার কাঁচামাল পাঠাতে রাজি হয়েছে ওয়াশিংটন। দেবে জরুরি চিকিৎসার অন্য

 

সরঞ্জামও।ভারতের চরম চিকিৎসা সংকটে পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইউরোপীয়

ইউনিয়নও। এমনকি চিরশত্রু পাকিস্তানও প্রতিবেশী দেশে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম ও ওষুধ পাঠাতে চেয়েছে।

 

আগে নিজদেশে করোনাভাইরাস মহামারি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে গত ফেব্রুয়ারিতে টিকার কাঁচামাল রফতানিতে

নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারতও ওই মাসের শেষদিকে আগে অনেকটা

 

একইভাবে বিদেশে টিকা রফতানি বন্ধ করে দেয়। তবে মার্কিনিরা কাঁচামাল পাঠানো বন্ধ করে দেয়ায় হুমকিতে

পড়ে ভারতীয়দের টিকা উৎপাদন। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে দফায় দফায় আবেদন জানায় ভারত। তবে তাতে

 

আশানুরূপ সাড়া দিচ্ছিল না ওয়াশিংটন। কিন্তু গত কয়েকদিনে ভারতে বিশ্বরেকর্ড সংক্রমণ আর অক্সিজেন

সংকটের ভয়াবহ দৃশ্য দেখে অবশেষে মন নরম হয়েছে মার্কিন নীতিনির্ধারকদের। রোববার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো

 

বাইডেন এক টুইটে বলেছেন, মহামারির প্রথম দিকে আমাদের হাসপাতালগুলো চাপে পড়লে ভারত যেভাবে

সহায়তা পাঠিয়েছিল, আমরাও প্রয়োজনের সময়ে তাদের সহায়তা করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। এর আগে হোয়াইট হাউস

 

এক বিবৃতিতে জানায়, তারা ভারতীয় টিকা উৎপাদনকারীদের কাছে জরুরিভাবে কাঁচামাল সরবরাহ করবে। ভারতে

বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং সুরক্ষা উপকরণও পাঠাতে চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে যুক্তরাজ্য বলেছে, তারা

 

ভারতকে ৪৯৫টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর দেবে। এই যন্ত্রটি বাতাস থেকে অক্সিজেন বের করতে সক্ষম। পাশাপাশি

১২০টি ইনভেসিভ ভেন্টিলেটর এবং ২০টি ম্যানুয়েল ভেন্টিলেটরও পাঠাবে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। অন্য দেশগুলোর মধ্যে

 

ফ্রান্স ঘোষণা দিয়েছে, তারা ভারতকে অক্সিজেন সহায়তা দেবে। ইউরোপীয় কমিশন জানিয়েছে, তারা ভারতে

অক্সিজেন এবং ওষুধ পাঠানোর পরিকল্পনা করছে। কমিশনের প্রধান ভন ডার লিয়েন বলেছেন, ভারতের সাহায্যের

 

আবেদনে সাড়া দিতে দ্রুত সংস্থানের ব্যবস্থা করছেন তারা। ভারতের বিপদের সময় পুরোনো শত্রুতা ভুলে পাশে

দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তানও। তারা প্রতিবেশীদের কাছে জরুরি চিকিৎসা উপকরণ পাঠাতে চেয়েছে।

 

ইধি ফাউন্ডেশন ভারতে ৫০টি অ্যাম্বুলেন্স পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে। এছাড়া সৌদি আরব ভারতকে ৮০ মেট্রিক টন

তরল অক্সিজেন উপহার দিচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরেই টানা সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়ছে ভারত। রোববার দেশটিতে

 

সাড়ে তিন লাখ মানুষ নতুন করে করোনা পজিটিভি শনাক্ত হয়েছেন, মারা গেছেন আড়াই হাজারেরও বেশি।

করোনা সংক্রমণের এমন ভয়াবহতা এর আগে আর কোনও দেশে দেখা যায়নি। সূত্র: বিবিসি, রয়টার্স

 

 

Check Also

করো’না আ’ক্রান্ত বাবার মুখে পানি দিতে যাচ্ছে মে’য়ে, আ’ট’কাচ্ছেন মা

করোনা আ’ক্রান্ত হয়ে বাবা পড়ে আছেন মাঠের মধ্যে। উদ্বিগ্ন মে’য়ে পানি দিতে যাচ্ছেন অ’সুস্থ বাবাকে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *