মামুনুল হককে গ্রে’ফতার করায় ফেসবুকে জিহাদের ঘোষণা, যুবক গ্রে’ফতার

হেফাজত নেতা মামুনুল হককে গ্রে’ফতারের প্র’তিবাদে ফেসবুকে জিহাদের আহ্বান জানানোর অভিযোগে মাগুরায়

শাহীন বিপ্লব (২১) নামে এক যুবককে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মা’মলায়

 

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে উপজে’লার বালিদিয়া ইউনিয়নের বড়রিয়া গ্রামের পশ্চিম পাড়ার নিজ

বাড়ি থেকে মহম্ম’দপুর থানা পু’লিশ তাকে গ্রে’ফতার করে। এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় মহম্ম’দপুর থানায় শাহীন

 

বিপ্লবের বি’রুদ্ধে পু’লিশ বা’দী হয়ে মা’মলাটি করেন। শাহীন বিপ্লব বড়রিয়া গ্রামের শাহজাহান সর্দারের ছেলে। সে

ছাত্রদলের একজন কর্মী। সে ফরিদপুর স’রকারি রাজেন্দ্র কলেজের স্নাতক সম্মান শ্রেণির ছাত্র। মা’মলার বিবরণে

 

জানা গেছে, হেফাজত নেতা মামুনুল হককে গ্রে’ফতারের পর নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে তার গ্রে’ফতারের

বি’রোধিতা করে স্ট্যাটাস দেন শাহীন। স্ট্যাটাসে বলা হয়, আল্লামা মামুনুল হককে গ্রে’ফতার করোনি, হৃদয়ে

 

আ’ঘাত করেছ। আর ছাড় দেওয়া হবে না। এতো বড় দুঃসাহস তোমাদেরকে কে দিয়েছে। এখন শুধু একটি

জিহাদের ঘোষণার অপেক্ষায় আছি। স্ট্যাটাস থেকে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে জিহাদে আসার আহ্বান

 

জানানো হয়।পু’লিশের ভাষ্যমতে, শাহীন বিপ্লব ১৯ এপ্রিল রাত ৯টা ৪৯ মিনিটে ফেসবুকে জিহাদের আহ্বান

জানান ও প্রচার করেন। তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে উচ্ছৃঙ্খল লোকজন জমায়েত হয়। পরিস্থিতির অবনতির

 

আ’শঙ্কা ও উ’স্কানিমূ’লক বক্তব্য দিয়ে শাহীন বিপ্লব ফেসবুকের মাধ্যমে মিথ্যাচার করেছেন। এজন্য তার

বি’রুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মা’মলা করা হয়েছে। মহম্ম’দপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) তারক বিশ্বাস

 

বলেন, পু’লিশের দা’য়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মা’মলায় শাহীন বিপ্লবকে গ্রে’ফতার করা

হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে আ’দালতে পাঠানো হয়েছে।

 

 

Check Also

ধর্ম নিয়ে রুচিহীন প্রশ্ন বন্ধ হোকঃ বিব্রত চঞ্চল চৌধুরী

বাংলা নাটকের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র চঞ্চল চৌধুরী। এই পর্যন্ত ভিন্নধর্মী অভিনয় করে ভক্তদের হৃদয়ের মণিকোঠায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *