শ’ত্রুতা ভুলে ভারতকে সাহায্যের হাত বাড়াল পাকিস্তান

ক;;রোনা;ভাই;রাস ম;হামা;রির সময় শ;ত্রু;তা ভুলে ভারতের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল পাকিস্তান।

ক;রো;;নার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বি;প;র্য;স্ত দেশটিকে ভেন্টিলেটর, বাইপ্যাপ, ডিজিটাল এক্স-রে, পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ

 

ইক্যুপমেন্ট (পিপিই) কিটসহ বিভিন্ন সামগ্রী পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে ইসলামাবাদ। শনিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জাহিদ হাফিজ চৌধুরী টুইটারে বলেন, কোভিড-১৯-এর বর্তমানে ঢেউয়ের মধ্যে ভারতের

 

মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদেরকে ভেন্টিলেটর, বাইপ্যাপ, ডিজিটাল এক্স-রে, পিপিই কিটসহ বিভিন্ন সামগ্রী

পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান। অপর একটি টুইটে বলা হয়, সেই সমগ্র সামগ্রী দ্রুত পাঠানোর জন্য ভারত

 

এবং পাকিস্তানের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষ সেই বিষয়ে কাজ করতে পারে। ম;হা;মা;রি;র কারণে যে চ্যালেঞ্জের

সম্মুখীন হতে হচ্ছে, তা সমাধানের জন্য দু’দেশে সম্ভাব্য উপায়েরও সন্ধান করতে পারে। দুটি টুইটেই ভারতের

 

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ট্যাগ করা হয়েছে। তবে বিষয়টি নিয়ে নয়াদিল্লির এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের টুইটের আগে দুপুরের দিকে ক;রো;না পরিস্থিতিতে ভারতের পাশে দাঁড়ানোর

 

বার্তা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একটি টুইটবার্তায় ইমরান বলেন, ক;রো;না;ভাইরা;সের বি;প;জ্জ;নক

ঢেউয়ের বি;রু;দ্ধে ল;ড়া;ইয়ের সময় আমরা ভারতীয়দের পাশে দাঁড়া;চ্ছি। আমাদের প্রতিবেশী এবং বিশ্বের যে

 

দেশগুলো এই ম;হা;মা;রিতে জর্জরিত, তাদের দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার জন্য প্রার্থনা করছি। আমাদের

অবশ্যই একত্রিতভাবে এই বিশ্বব্যাপী সং;ক;টের মোকাবিলা করতে হবে। এর আগে ভারতকে সাহায্যের প্রস্তাব দেন

 

পাকিস্তানের সমাজকর্মী এবং মানবাধিকার র;ক্ষা আন্দোলনের ‘মুখ’ ফয়সাল ইধি। টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে,

জনকল্যাণমূলক সংস্থা ইধি ফাউন্ডেশনের প্রধান ভারতে ৫০টি অ্যাম্বুলেন্স এবং স্বেচ্ছাসেবক পাঠানোর অনুমতি

চেয়েছেন নয়াদিল্লির কাছে। গত শুক্রবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি পাঠিয়ে এই প্রস্তাব দিয়েছেন

ফয়সাল।

 

 

Check Also

নিঃস্ব হওয়ার পথে ভারত!

জাতিসংঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফ বলছে, ভারতে প্রতি সেকেন্ডে চারজন করে নতুন করো’না রোগী শনা’ক্ত হচ্ছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *