সুন্দরবন যে দেশে নাই, সে দেশ কি চলে না !

এই দেশের উন্নতি যেন না হয়, সেজন্য একটি গোষ্ঠী রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের

বি’রোধিতা করছে বলে মন্তব্য করেছেন বাগেরহাট-৪ আসনের সং’সদ সদস্য মো. মোজাম্মেল হোসেন।

তিনি বলেছেন, ‘সুন্দরবন যে দেশে নাই, সে দেশ কি চলে না?’

 

বুধবার (১৫ মার্চ) বাগেরহাট জে’লা পরিষদ মিলনায়তনে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

(এনবিআর) আয়োজিত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট আলোচনা ও রাজস্ব সংলাপে

এ কথা বলেছেন স’রকারদলীয় সং’সদ সদস্য মোজাম্মেল হোসেন।

 

এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সংলাপে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন,

‘যারা আয়কর দেন এবং যারা দেন না, তারা এক হতে পারেন না। তাই যারা আয়কর দেন,

তাদের সম্মানিত করার ব্যবস্থা থাকতে হবে।’ এ বি’ষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি এনবিআর

 

চেয়ারম্যানের কাছে প্রস্তাব করেন। অনেকেই মনে করেন, ট্যাক্স দিলে টাকা কমে যায়।

এ ধারণা প্রসঙ্গে মোজাম্মেল হোসেন বলেন, ‘ট্যাক্স দেওয়ার পর যদি কারও টাকা কমে যায়,

তাহলে তিনি যেন আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে যান।’ এসময় ট্যাক্স থেকে প্রাপ্ত অর্থ

 

সদ্ব্যাহারের ও’পর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।সংলাপে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রসঙ্গে

বাগেরহাট-৪ আসনের এই সং’সদ সদস্য বলেন, দেশের উন্নয়নের জন্য রামপাল

তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র জরুরি। যারা দেশের উন্নতি চায় না, তারাই এর বি’রোধিতা করছে।

 

বাগেরহাট জে’লা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সংলাপে আরও বক্তব্য রাখেন

বাগেরহাট-৩ আসনের সং’সদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেক, বাগেরহাট-২ আসনের

সং’সদ সদস্য মীর শওকাত আলী বাদশা, এনবিআর সদস্য ফরিদ উদ্দিন, কালীপদ

হলদার ও পারভেজ ইকবাল প্রমুখ।

Check Also

কারামুক্ত হাজী সেলিমের ছে’লেকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ

অবশেষে সব মা’মলায় জামিনে নিয়ে কারাগার থেকে বেরিয়ে এলেন সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্ম’দ সেলিমের ছে’লে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *