Breaking News

স্ত্রী মি’লনের পর বাহিরে বী’র্য’পা’ত করা কি জা’য়েজ??

১. মহিলাদের মা’সি’ক বা ঋ’তু’স্রা’ব অবস্থায় ক’খনোই স্ত্রী স’হবা’স করা উচিত না।

২. নিফাস ( অর্থাৎ মহিলাদের বা’চ্চা প্র’স’বের পর চ’ল্লিশ দিন বা এর কমে যে কয়দিনে র’ক্ত আসা

পরিপূ’র্ণ’ভা’বে বন্ধ হয়ে যায়) অবস্থায় স্ত্রী স’হবা’ করা উচিত না। এ দুসময়ের মধ্যে

 

স’হবা’স করলে উভয়েরই অনেক ক্ষ’তির সম্মুখীন হওয়ার আ”শঙ্কা রয়েছে। কেননা এ সময়ের

র’ক্তে’র প্রচুর পরিমাণ বি’ষা’ক্ত জী’বানু থাকে। যার দ্বারা ভ’য়ান’ক রো’গ হওয়ার সম্ভাবনা প্র”মাণিত।

অনেক পু”রুষকে দেখা যায় যে , এ স্ম’য় স’হ’বাস করার কারণে ল”জ্জা’স্থানে এ’লার্জী জাতীয়

 

বিভিন্ন রো’গ হয়। ল”জ্জাস্থা’নে জ্বা”লাপো’ড়া শ্র“ হয়ে যায়, আবার কারো ধা’তু’ দু”র্ব’লতা দেখা দেয়।

এ সময়ের স’হবা’স দ্বারা স’ন্তান জ’ন্ম নিলে অনেক ক্ষেত্রে সন্তানের শরীরে বিভিন্ন রো’গ

হয়ে থাকে। শরীরে বিভিন্ন ধরণের ঘা” হয়, যা থেকে অনবরত পানি ঝ’রতেই থাকে এবং

 

বাচ্চাদানী বাহিরে বের হয়ে আসে । আবার অনেক সময় মহিলাদের ভ্রু”ণ ন”ষ্টের রো’গ হয়ে

থাকে।এ ছাড়াও এ সময়ের স’হবা’সে নারী পু’রুষ উভয়েই বিভিন্ন ধরণের রো’গ ব্যা”ধিতে আ”ক্রান্ত হয়।

কেননা ঋ”তুস্রা”ব ও নে”ফাসের র”ক্তে শ’রীরের ভিত’রের রো’গ জী”বাণু”যুক্ত অ’পবিত্র উপকরণ থাকে।

 

সে সাথে বি”ষা’ক্ত জী”বাণুও থাকে। র’ক্তস্রা”বের সময় মহিলাদের স’র্বক্ষণ র”ক্ত নির্গত হওয়ার

কারণে কারো কারো যৌ”নাঙ্গ”টি এক প্রকার ফোলা ও উষ্ণ থাকে। ঋ”তুস্রা’ব বা নে’ফাস থেকে

পবিত্র হয়ে গোসল করার আগ পর্যন্ত মহিলাদের সাথে স”হ’বাস ক’রবেনা। ৩. কাজের ব্যস্ততা

 

বেশি থাকলে সে সময় স”হবা’স করা উচিত না। ৪. চিন্তা-ভাবনা, পেরেশানী ও বিচলিত হালতে

স”হবাস করা উচিত না। ৫. দু”র্বল ও ক্লান্ত অবস্থায় স”হবাস না করা উচিত। ৬. মা’তাল অবস্থায়

স’হবাস না করা। ৭. পে”শাব পা”য়খানার চাপ থাকলে স”হবাস না করা।

 

৮. একেবারে খালি পেটে অথবা ভরপেটেও স”হবাস না করা । এ অবস্থায় স”হবাসে

পেটের বিভিন্ন রোগ সৃষ্টি হওয়ার প্রবল আ”শঙ্কা থাকে । এমনকি পা”কস্থলী কলিজার উপর

চলে আসারও সম্ভাবনা থাকে।বি’জ্ঞ’দের মতে ভরপেটে সহবাস করলে শগর

( অর্থাৎ পে’শাবের সাথে পূ”জ পড়া এবং শরীর খুবই দু”র্বল হয়ে যাওয়া) রোগ হয়ে থাকে

 

আবার একেবারে খালি পেটে স”হবাস করা শরীরের জন্য আরো ক্ষ”তিকর। কেননা বী”র্যপা’তের পর

অণ্ডকোষ নিজের খাদ্য চ”র্বি থেকে ত’লব করে থাকে। আর চর্বি নিজের খাবার তলব করে কলিজা থেকে।

কলিজা তার খাবার তলব করে পাকস্থলী থেকে। ক্ষু”ধার্ত অবস্থায় পেট থাকে একেবারে খাবার শূন্য ।

 

যার কারণে টিবি, ভীতিপ্রদ রো”গ, চোখের দৃ’ষ্টি’শক্তি কমে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থাকে।

অ’সু”স্থতা থেকে মু”ক্তির পর শা”রী’রিক দু’র্ব’লতা এখনো অবশিষ্ট আছে এ অবস্থায় স’হ”বাস না করা।

মৃ”গী রো”গ, টি’বি রো”গে আ’ক্রা’ন্ত ব্যাক্তি সহ”বাস থেকে দূরে থাকবে। ম”স্তিষ্ক ক্ষয় হয়

 

এমন কাজের পর স”হবা’স না করা। যাদের চোখের দৃষ্টির রো”গ , শা’রী’রিক দু”র্বলতা ও কলিজা,

পাকস্থলী দুর্বল তাদের তাদের জন্যও স”হ’বাস করা ক্ষতিকর। তদ্রুপভাবে অ”র্শ্ব ও যৌ”’নরো’গে

আ”ক্রা’ন্ত ব্যাক্তি য”থাসম্ভব স”হবাস থেকে দূ”রে থাকবে। ৯. যাদের গ”নোরি’য়া রো’গ আছে

 

তারাও যথাসম্ভব স’হ’বাস থেকে দূ”রে থাকবে। ১০. অসুস্থ অবস্থায় ও জী”বা’নুযুক্ত বা”তাস গ্র’হণের সময়

স”হবাস না করা উচিত। জ্ঞানী ব্যাক্তিদের ধারণা মতে চাঁদের এগারো তারিখে স”হবাস করা নিজের বয়স

কমিয়ে ফেলারই নামান্তর। প্রা’প্ত বয়সের পূর্বে ভ্রুণ তৈরি হলে সে স’ন্তান অ’সু’স্থ অবস্থায়

 

জ”ন্মগ্রহণ করে। বৈজ্ঞানিকদের মত রাতের প্রথমাংশে স’হবা’সের দ্বা’রা সন্তান জন্ম

গ্রহণ করলে সে সন্তান অল্প বয়সে মৃত্যুবরণ করে। আর রাতের শেষ প্রহরে

স’হবা’স করার দ্বারা সন্তান জ’ন্মগ্র’হণ করলে সন্তান সু’স্থ সবল ও ধ’র্ম’ভীরু হয়ে থাকে।

 

Check Also

হলিউড ছেড়ে ইসলামের পথে এমিলি !

নব্বইয়ের দশকে ব্রিটিশ হলিউড জগতে অভিনয়ের মাধ্যমে মরিয়াম ফ্রাংকয়েস সেররাহ পরিচিত হয়ে ওঠেন। খুব ছোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *