৬ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদান পাবে আগামী ২ মে

আগামী ২ মে চলমান ক’রো’না পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত নিম্ন আয়ের ৬ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদানের

দুই হাজার ৫১৫ টাকা করে পাবে। মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস বিকাশ, নগদ এবং রকেটের মাধ্যমে বিতরণ করা হবে

 

এ অর্থ। বুধবার (২৮ এপ্রিল) অর্থ বিভাগের উপ-সচিব মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান খান স্বাক্ষরিত ছয় লাখ পরিবারের

জন্য ১৫০ কোটি ৯০ লাখ টাকার সরকারি ব্যয় মঞ্জুরির এক চিঠি চিফ অ্যাকাউন্টেন্ট বরাবর পাঠানো হয়েছে।

 

ব্যয় মঞ্জুরির চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ক’রো’নায় ক্ষতিগ্রস্ত

কর্মহীন দরিদ্রদের জন্য নগদ সহায়তা কার্যক্রম সম্পাদনের লক্ষ্যে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের সংশোধিত

 

বাজেটে অর্থ বিভাগের অধীন ‘মুজিব শতবর্ষে ক’রো’নায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ সহায়তা

প্রদান’ শীর্ষক কোডের আওতায় ‘বিশেষ অনুদান’ খাতে ৭৫৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এ বরাদ্দ থেক

 

ক্ষতিগ্রস্তদের মোবাইল অ্যাকাউন্টে জনপ্রতি দুই হাজার ৫১৫ টাকা হারে দ্বিতীয় ধাপে ছয় লাখ পরিবারের

অনুকূলে ১৫০ কোটি ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ের জন্য আজ (২৮ এপ্রিল) সরকারি মঞ্জুরি জ্ঞাপন করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে অর্থ বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, গত বছর ক’রো’নায় ক্ষতিগ্রস্তদের আড়াই হাজার টাকা করে

নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়। তাদের তথ্য ডাটাবেইজে সংরক্ষিত আছে। গত বছর যারা টাকা পেয়েছিলেন,

 

তারাই এ বছরও টাকা পাবেন আগামী ২ মে থেকে ছয় লাখ পরিবারকে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দুই

হাজার ৫১৫ টাকা করে পাঠানো শুরু হবে। এর বাইরে নতুন করে শুধুমাত্র কৃষকদের জন্য পাঁচ হাজার টাকার

 

অনুদানের যাচাই-বাছাইয়ের কাজটি করা হচ্ছে।সম্প্রতি প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত এক লাখ কৃষক পরিবারকেও

পাঁচ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এজন্য ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক পরিবারের তালিকা

 

চূড়ান্ত করতে মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহের কাজ চলছে। উল্লেখ্য, এর আগে গত ২০১৯-২০ অর্থবছরে ক’রো’নায়

ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারকে যাচাই–বাছাই করে প্রায় ৩৫ লাখ পরিবারকে অর্থসহায়তা দেওয়া হয়েছিল।

 

 

Check Also

সরকারের দোষ খুজেন।কয়টা লোককে সহায়তা করেছেন জানান: প্রধানমন্ত্রী

করোনাকালীন সরকারের কাজ নিয়ে যারা সমালোচনা করছেন তারা মানুষের জন্য কী করছেন তা জানতে চেয়েছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *