Breaking News

শীঘ্রই দাজ্জালের আগমন হবে তার সাতে দেখা হয়েছে আমা’রঃ-ইস’রায়েলের ধ’র্মযাজক

সারাবিশ্ব এখন করোনা নিয়ে ব্যাস্ত এর মধ্যে দাজ্জাল নিয়ে চিন্তিত মুসলিমরা।

শীঘ্রই মসীহ দাজ্জালের আগমন ঘটতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইস’রায়েলের শীর্ষ পর্যায়ের রাব্বি বা ধ’র্মযাজকরা।

এজন্য তারা এ মুহুর্তে দেশ ছেড়ে অন্যকোথাও যেতে চাচ্ছেন না।

কারণ তাতে তারা তাদের প্রতিশ্রুত মসীহর (দাজ্জাল) আগমনকে স্বাগত জানাতে পারবেন না।

 

ইস’রায়েলি রেডিওতে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এমনটিই জানালেন দেশটির একজন রাব্বি। ইস’রায়েল ‍টুডের খবর

তিনি জানান, মসীহ খুব শীঘ্রই আত্নপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন। রাব্বি ইয়াকুব জিশলজ ধ’র্মভিত্তিক রেডিও ২০০০

কে দেয়া তিন ঘন্টার ওই সাক্ষাতকারে বলেন, ‘আমাদের শীর্ষ রাব্বি চেইম ক্যানিভস্কি

 

আমাকে বলেছেন ইতিমধ্যে মসীহর সঙ্গে তার সরাসরি সাক্ষাতও হয়েছে।

এরপরই আম’রা বিষয়টিকে অ’ত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি।’ ইস’রায়েলের আল্ট্রা-অর্থোডক্স

ইহুদি কমিউনিটিতে রাব্বি চেইম ক্যানিভস্কিকে শীর্ষ দুই-তিনজনের একজন মনেকরা হয়।

ইয়াকুব জিশলজ বলেন, ‘রাব্বি চেইম ক্যানিভস্কিসহ আধ্যাত্নিক কারণে গো’পন থাকা রাব্বিরা

 

এখন আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন মসীহর আসন্ন আগমনের বিষয়টি জনগণের কাছে প্রচার করার জন্য।’

একটি সতর্কবার্তা উচ্চারণ করে ইয়াকুব জিশলজ বলেন, ‘শীঘ্রই পরিত্রান প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে এবং সেটি খুব দ্রুতগতিতে চলবে।

এ মুহুর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচেছ জনগণকে শান্ত এবং দৃঢ় থাকতে হবে, যাতে সঠিক সময়ে সঠিক কাজটি করা যায়।

 

প্রত্যেক প্রজন্মেই একজন সম্ভাব্য মসীহ থাকেন ওই প্রজন্মের সঠিক জ্ঞানসম্পন্ন

লোকেরাই তাকে সঠিকভাবে চিনতে পারে। আমাদের প্রজন্মের সেই মসীহ আসছেন এটিই সত্য।’

তিনি বলেন, ‌‘প্রতি মুহুর্তে আমাদের জন্ম-মৃ’ত্যু যেভাবে হচ্ছে মসীহ এখন তার চেয়েও বেশি কাছে।

 

আপনি কি গগ এবং মাগগের (ইয়াজুজ-মাজুজ) কথা শুনতে পাননি? সেটাও চলে আসবে।

ঠিক এ মুহুর্তে পরিস্থিতি বিষ্ফোরণ্মুখ, আপনি যতোটুকু চিন্তা করতে পারছেন তার চেয়েও বেশি।

প্রত্যেকেরই এখন জানা উচিত সে কি এ জন্য ‍প্রস্তুত থাকবে? না বিষয়টিকে এমনিতেই ছেড়ে দেবে।’

 

তিনি বলেন, ‘আমাদের রাব্বিরা মসীহ আত্নপ্রকাশের অনেক নিদর্শনও ইতিমধ্যে দেখতে পেয়েছেন,

যা তারা লিখে রেখেছেন। ফলে মসীহ আত্নপ্রকাশের প্রমাণগুলো পেয়ে তারা বিষয়টি দৃঢ়ভাবে বিশ্বা’স করেন।

রাব্বি ডভ কুকের ধ’র্মীয় জ্ঞান ও নীতিবোধ স’ম্পর্কে আপনারা সবাই জানেন। তিনি আমাদের প্রজন্মের সর্বোত্তম মানুষগুলোর একজন।

দশবছর আগে ইস’রায়েলে যখন মা’রাত্নক খরা চলছিলো তখন তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিলো

গ্যালিলি সমুদ্র আবার কবে অথই পানিতে ভরে যাবে। রাব্বি কুক বলেছিলেন, যখন মসীহ

আসবেন তখন এ সমুদ্র কানায় কানায় পূর্ণ হবে। সেই গ্যালিলি সমুদ্র কয়েক সপ্তাহ আগে

কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে।’

 

তিনি বলেন, ‘রাব্বি ডভ কুক এও বলেছিলেন যে, ই’রাইলের বর্তমান সরকার পরিবর্তন হবে না।

তিনটি নির্বাচন হলেও তার কথাই ফলেছে। এ ব্যাপারে আরেকজন রাব্বি বলেছিলেন, ঐশ্বরিক

পরিস্থিতি বলছে এটি নির্বাচনের সময় নয় বরং একটি যু’দ্ধের সময়। যদি নির্বাচন হয়ও তবে

নেতানিয়াহু থেকে কেউ ক্ষমতা নিতে পারবে না।’

 

রাব্বি ইয়াকুব জিশলজ আরো বলেন, ‘কয়েক দশক আগে আধুনিক ইস’রায়েলের

সর্বশ্রদ্ধেয় ও মহাপ্রাজ্ঞ রাব্বি ইয়েজাক কাদুরি এবং রাব্বি মেনাসেম সেনিরসন ভবিষ্যদ্বাণী

করেছিলেন বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু হবেন মসীহ আসার পূর্বে ইস’রায়েলের সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী।

ইস’রায়েলের বেশিরভাগ আল্ট্রা-অর্থোডক্স ইহুদি এটিকেই সত্য হিসেবে বিশ্বা’স করে।’

 

ইহুদি জাতির কাছে এ মসীহ হচ্ছেন দাজ্জাল। সর্বশেষ নবী মুহাম্ম’দ (স.) এর হাদীস

অনুযায়ী কিয়ামতের আগে পৃথিবীতে দু’জন মসীহ আসবেন। একজন ঈসা ইবনে

ম’রিয়ম (আ) বা ঈসা মসীহ, যিনি হবেন সত্যের ধারক। তিনি পৃথিবীতে এসেছিলেন

এবং কিয়ামতের আগে আবার আসবেন। আর অন্যজন মসীহ দাজ্জাল, যে হবে মিথ্যুক এবং সন্ত্রাস সৃষ্টিকারী।

 

অন্যদিকে ইহুদিরা মনেকরে, ঈসা (আ.) আর আসার সুযোগ নেই। তাদের হিব্রু

বাইবেলে আসা প্রতিশ্রুত মসীহর আগমণ এখনো ঘটেনি। সে আসবে এবং বিশ্বের সব

ইহুদিদের একস্থানে এনে সারা বিশ্বের নেতৃত্ব দেবে। ফলে ইহুদিরা তাদের সেই মসীহর

আগমণের জন্য পৃথিবীকে প্রস্তুত করছে।

 

মুহাম্ম’দ (স.) একইভাবে বলে গেছেন মিথ্যুক দাজ্জাল হবে ইহুদিদের নেতা

এবং তাদের নিয়েই সে সারা’বিশ্বে সন্ত্রাস সৃষ্টি করবে। যাকে হ’ত্যা করে বিশ্বে

শান্তি প্রতিষ্ঠা করবেন ঈসা (আ.)।

সূত্র: ইস’রায়েল ‍টুডে

Check Also

সাকিব ভাই ছাড়া কেউ আমা’র খোঁ’জ নেয়নি: নাসির

বাংলাদেশ দলের এক সময়ের তারকা ক্রিকেটার নাসির হোসেন। দুর্দান্ত সব ইনিংস খেলে জাতীয় দলের ‘দ্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *