অ`শ্লিল সাইটগুলি সবথেকে বেশি দেখে মহিলারা, কেন জেনে নিন

অ`শ্লিল সাইটগুলি সবথেকে বেশি দেখে মহিলারা, কেন জেনে নিন

নীল সাইট সার্ফিংয়ে ঝোঁক বাড়ছে মহিলাদের। গত এক বছরে যা রেকর্ড ভেঙেছে।

বি`খ্যাত নী`ল সাইট প.র্ন হাবে-র `রিপোর্ট বলছে, প্রতিদিন ইন্টারনেট সার্ফিংয়ের সময়

বিভিন্ন নীল সাইটগুলিতে কয়েক লক্ষ মহিলা ঢোকেন।গত এক বছরে বিশ্ব জুড়ে সংখ্যাটা

 

১৪০০ শতাংশ বেড়েছে। এই বর্ধিত সংখ্যা ভারতের পক্ষে বিপজ্জনক বলে মনে করছে প.র্ন হাব।

কারণটা শুনলে প.র্ন সাইট সার্ফিংয়ের আগে বার বার ভাবতে হবে, ঢুকব কি ঢুকব না..প.র্ন হাব

সাইটের ভাইস প্রেসিডেন্ট করী প্রাইস একটি মারাত্মক তথ্য দিচ্ছেন।

তিনি জানাচ্ছেন, প.র্ন সাইট সার্ফিংয়ে কয়েক লক্ষদের মধ্যে রয়েছেন ভারতীয় মহিলারাও।

 

যাঁরা প্রতিদিন একগাদা প.র্ন সাইটে ঢুকছেন। অথচ,ভারতে ইতিমধ্যেই প্রায় ৮০০ প.র্ন সাইট

নিষিদ্ধ হয়েছে। তাহলে কোন ধরণের প.র্ন সাইট সার্ফিং করছেন ভারতীয়রা!! সেই প্রশ্নই বার

বার উঠছে। করীর দাবি, বেশিরভাগ সময়ই তাঁরা নকল বা বেআইনি প.র্ন সাইটে ঢুকে পড়ছেন,

এর মধ্যে ভারতীয় মহিলারাও রয়েছেন। যা এক কথায় বিপজ্জনক।

পএর আগে প.র্ন হাব- ই নকল প.র্ন সাইট নিয়ে ভারতকে সতর্ক করেছিল। কারণ,

দেশে নিষিদ্ধ হওয়ার পরও প.র্ন সাইট দেখা ছাড়েননি ভারতীয়রা। সেই কারণেই এখনও প.র্ন

সাইট সার্ফিংয়ে বিশ্বের মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আমাদের দেশ। আমেরিকা,

ব্রিটেনের পরই রয়েছে ভারতের নাম। এমনই তথ্য দিচ্ছে প.র্ন হাব। করীর দাবি,

 

ভারতের তৃতীয় স্থানে থাকার বড় কারণ হল প.র্ন সাইটে মহিলাদের ঢোকার ঝোক।

আর সেই সুযোগেই ঘুরপথে থাবা বসাচ্ছে নকল প.র্ন সাইট। যা অ`নায়াসেই সার্ফিং করা যাচ্ছে।

প.র্ন হাবের রিপোর্ট বলছে, গ্রাহক টানতে প.র্ন ওয়েবসাইটগুলি তাদের নকল সাইট বানাচ্ছে।

 

সেখানেই বে`শিরভাগ ভারতীয়রা ঢুকে পড়ছেন। এর মধ্যে রয়েছেন মহিলারাও।

যা চিন্তার কারণ। নিজেদের অজান্তেই বেআইনি প.র্ন সাইটে ঢুকে বি`পদ বা`ড়াচ্ছেন

গ্রাহক নিজেই। কোনও কোনও সাইটে আবার মে`ম্বারশিপও নিচ্ছেন মহি`লারা।

বিশ্ব জুড়ে ১৮-৪০ বছরের মহিলারাই প.র্ন সাইটে সবচেয়ে বেশি ঢুকছেন।

 

বাড়ছে ‘প.র্ন ফর উইম্যান’ সাইটগুলিতে মহিলাদের ঢোকার ঝোঁক।এ বিষয়ে পিছিয়ে

নেই ভারতও।ভারতের ক্ষেত্রে সবচেয় বড় চিন্তা বেআইনি প.র্ন সাইটের ফাঁদ।

করীর আবেদন, প.র্ন হাব বা ট্রিপল এক্স ভিডিও-র মত লাইসেন্স প্রাপ্ত প.র্ন সাইটগুলি

নিষিদ্ধ না করে নকল সাইট গুলির উপর নজর দিক ভারত।

তাতেই সুরক্ষিত থাকবেন ভারতীয়ররা, বিশেষ করে মহিলারা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com