এক মাসেই চাকরি হা’রিয়েছে ১২ কোটি ভারতীয়

এক মাসেই চাকরি হা’রিয়েছে ১২ কোটি ভারতীয়

কারোনা ভাইরাসের কালো থা’বায় বি’প’র্যস্ত হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব।

ব্যতিক্রম নয় ভারতও। ফলে দেশটিতে করোনা প্রতিরো’ধে টানা লকডাউন চলছে।

এই লকডাউনে স্থ’বির হয়ে গেছে স্বাভাবিক যাপন। থেমে গেছে অর্থনীতির চাকা।

 

ফলে এর প্রভা’ব পড়েছে ভারতের চাকরির বাজারেও।সম্প্রতি মোদি সরকার আহ্বান

জানিয়ে বলেছেন, ”কাউকে চাকরি থেকে তা’ড়াবেন না।” কিন্তু কার্যক্ষেত্রে দেখা

যাচ্ছে আরও বাড়ছে বেকারত্বের হার।

 

ভারতে মোট ১১ কোটি ৪০ জনের চাকরি লকডাউনের বাজারে অ’বলু’প্ত হয়ে গেছে

বলে জানিয়েছে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি (সিএমআইই)|সিএমআইই জানায়,

সবচেয়ে ক্ষ’তিগ্র’স্ত হয়েছেন ছোট ব্যবসায়ী ও দিনমজুররা। মঙ্গলবারের তথ্য অনুযায়ী,

 

৩ মে-র সপ্তাহে দেশে বেকা’রত্বের হার বেড়ে হয়েছে ২৭.১ শতাংশ, যেটা এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি।

ভারতে শিল্পোত্পাদন কমেছে ১৬.৭ শতাংশ। ম্যানুফ্যাকচারিংয়ে উত্পাদন কমেছে ২০.৬ শতাংশ,

বিদ্যুৎ উৎপাদন কমেছে ৬.৮ শতাংশ। ২৬ এপ্রিলের সপ্তাহে বেকারত্ব ছিল ২১.১ শতাংশ,

 

তার আগের সপ্তাহে ২৬.২ শতাংশ। প্রসঙ্গত, করোনার জে’রে ভারতে ২৫ মার্চ থেকে

চলছে লকডাউন। ধাপে ধাপে তা বৃদ্ধি করা হয়েছে। ১৮ মে থেকে যে চতুর্থ লকডাউন হবে,

তা ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। তবুও দেশটিতে করোনার প্রকো’প কমেনি।

সূত্র : সিএমআইই

 

আরওপড়ুনঃদেশে করোনা ভাইরাস সব জেলাতেই ছড়িয়ে পড়েছে।

তবে দেশের কয়েকটি জেলাতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন

ব্রিফিংয়ে তথ্য মতে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১৬২ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

 

এছাড়া মারা গেছেন আরও ১৯ জন। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২৬৯।

দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ হাজার ৮২২ জন। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে

কিছু জেলায় দ্রুত বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। চট্টগ্রামে দ্রুতই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা

এখন পর্যন্ত ৩১৪ জন আক্রান্ত এই শহরে।কক্সবাজারে এখন পর্যন্ত ১০৭ জন শনাক্ত হয়েছেন।

কুমিল্লায় ১৮৬ জন কোভিড-১৯ রোগী পাওয়া গেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com