বিক্ষোভে ব’লপ্রয়ো’গ, প্রে’সিডেন্ট ট্রা’ম্পে’র বি’রু’দ্ধে মা”মলা

শ্বে’তাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃ’ষ্ণাঙ্গ জ’র্জ ফ্লয়েড হ”ত্যা’কা’ণ্ডের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রে বি’ক্ষোভ চলছে।

সম্প্রতি হোয়াইট হাউসের সামনে শান্তিপূর্ণ বি’ক্ষো’ভকারী’দের ওপর পুলিশের নি’র্যাত’নের অ”ভিযোগে

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বারের ‘বি’রু’দ্ধে মা’মলা দায়ের হয়েছে।

 

প্রে’সিডেন্ট ও অ্যাটর্নি জেনারেলের বি”রুদ্ধে মা’ম’লাটি করেছে মানবাধিকার সংগঠন দ্য আমেরিকান সিভিল

লিবার্টিজ ইউনিয়ন (আকলু)। ‘ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটারস’ নামের একটি সংগঠনের পক্ষে মা’মলা’টি করে তারা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

 

সোমবার হোয়াইট হাউসের সামনে যখন বি’ক্ষোভ চলছিল তখন পাশেই একটি গি’র্জা’য় ট্রাম্পের যাওয়ার

জন্য রাস্তা তৈরি করে দিতে শান্তিপূর্ণ বি’ক্ষো’ভকারী’দের বি’রু’দ্ধে পুলিশ লেলিয়ে দেওয়া হয়। তারপর ট্রাম্প

ওই গি’র্জায় গিয়ে বাইবেল হাতে ছবি তোলেন। পরে এ নিয়েও স’মা’লোচ’নার মুখে পড়েন তিনি।

 

তার গির্জায় যাওয়ার পথ ‘প’রিষ্কার’ করতে হোয়াইট হাউসের সামনে অবস্থান নেওয়া শান্তিপূর্ণ

বি’ক্ষো’ভকা’রী’দের টি’য়ার শে’ল ছুঁ’ড়ে ও লা’ঠি’পেটা করে ছ’ত্রভ’ঙ্গ করে পুলিশ। শা’ন্তিপূর্ণ বি’ক্ষোভ’কারীদে’র

বি’রু’দ্ধে এমন দমনাভিযানের কারণে তোপের মুখে পড়া ট্রাম্পের বি’রু’দ্ধে এবার মা”মলা দা’য়ের হলো।

 

মা’ম’লায় এজ’হারে উল্লেখ করা হয়েছে, কোনো রকম সতর্ক বার্তা না দিয়েই শা’ন্তিপূ’র্ণ বি’ক্ষোভ’কারী’দে’র

ওপর রাবার বুলেট ও টিয়ার গ্যাস ছুঁ’ড়ে হা’ম’লা করে পুলিশ। সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকেরা জানিয়েছেন,

সেদিনের বি’ক্ষো’ভ শান্তিপূর্ণ ছিল। পুলিশের শ’ক্তি প্রয়োগের কোনো প্রয়োজন ছিল না।

 

অ্যাটর্নি জেনারেল বারের দাবি, ঘটনার দিন হোয়াইট হাউসের সামনে নিরাপত্তা জো’রদারে ব্য’ক্তি’গতভাবে

পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ট্রা’ম্পে’র ছবি তুলতে যাওয়ার পথ ‘প’রি’ষ্কার’ করতে

বি’ক্ষোভ’কারী’দের ওপর শ’ক্তি প্র’য়োগের কোনো নির্দেশ পু’লিশকে দেননি বলে জানান তিনি।

 

সিএনএন বলছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার প্রশাসন রাজনৈতিক স্বা’র্থ হাসিলের জন্য এই বি’ক্ষোভ’কে

ব্যবহার করতে চাইছে। এই ঘটনার এক দিন আগে তিনি অঙ্গরাজ্যগুলোতে বি’ক্ষো’ভকা’রীদের বি”রু’দ্ধে

আরও আগ্রাসী পদক্ষেপ নিতে গভর্নরদের উৎসাহ দেন। আর ট্রাম্পকে সহায়তায় যু’ক্ত হয়েছের উইলিয়াম বার।

 

যুক্তরাষ্ট্রের এই গ’ণবি’ক্ষো’ভের উৎপত্তিস্থল মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস শহরে। জাল নোট

ব্যবহারের অভিযোগে আ’টক টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টনের বাসিন্দা জ’র্জ ফ্ল’য়েড গত সপ্তাহে পুলিশের

হাতে নি’হ’ত হ’ন। তার দেশটির সহস্রাধিক শহরে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

সুত্রঃ jagonews24

 

Check Also

বিশ্বের প’রাশ’ক্তি হতে যাচ্ছে তুরস্ক

  ব্যাপক অনুসন্ধানের পরে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান গত শুক্রবার আনন্দের সাথে ঘোষণা করেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *