মে’য়েকে ধ’র্ষণের পর মা’কেও ধ’র্ষণের হু’মকি ধ’র্ষকে’র

মে’য়েকে ধ’র্ষণের পর মা’কেও ধ’র্ষণের হু’মকি ধ’র্ষকে’র

তালা থানায় ধ’র্ষণের মা’মলা করে আ’তঙ্কে দিন কা’টাচ্ছে ধ’র্ষিতার প’রিবার। মা’মলা তু’লে না নিলে

আরও বড় ধরনের ক্ষ’তি করার হু’’ঙ্কার দিচ্ছে তারা। বাড়ি থেকে বে’র হলেই নানা ভাবে হে’নস্তা

করছে তারা, দিচ্ছে অ’শ্রাব্য ভা’ষায় গা’লি-গা’লাজ। মান সম্মানের ভ’য়ে তারা বা’ড়ি হতে বের হতে

 

পা’রছে না ধ’র্ষিতার প’রিবার। তালা উপজে’লা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাতক্ষীরা

জেলা পরিষদ সদস্য ও তালা রিপোটার্স ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক মীর জাকির হোসেন এলাকা পরিদর্শন

ও এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য ইউপি সদস্য’সহ সাধারণ মা’নুষের সাথে মতবিনিময় করেছেন।

 

সরজমিন পরিদর্শনে জানা যায়, তালা উপজে’লার জেয়ালা নলতা গ্রামের দিনমজুর আব্দুল আজিজের

ক’ন্যাকে ২৯মে’ ২০২০ ইং তারিখে সকাল ১১ টার সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে অ’সুস্থ মে’য়েকে

জো’র পূর্বক ধ’র্ষণ করে ল’ম্পট সোহাগ। সে একই গ্রামের ল’ম্পট হায়দার আলী সরদারের পুত্র।

 

এলাকার মা’নুষের অ’ভিযোগ হায়দার আলীও ঐ এ’লাকার চি’হ্নিত ল’ম্পট। তার অ’ত্যাচারে রাতের

বেলায় ম’হিলারা স’ম্ভ্রম হা’নির ভ’য়ে ঘর হ’তে বের হ’তে পা’রে না। তার ল’ম্পটের সালিশ মী’মাংসা

অনেকবার করেছে এ’লাকার মা’নুষ। গত ৩০ মে ২০২০ ইং ধ’র্ষিতার পিতা আজিজ সরদার বা’দী হয়ে

 

তালা থানায় মা’মলা দা’য়ের করেন। যার নং -৮। তালা থানা পুলিশ ভি’কটিমকে নি’জেদের হে’ফাজতে নিয়ে

ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করিয়েছেন। ধ’র্ষক প’লাতক থাকলেও থানায় মা’মলা করার কারণে বাড়িতে থাকা

অন্যান্য আ’সামীরা নি’র্যাতিত প’রিবারকে বিভিন্ন প্রকার হু’মকি দিচ্ছে। ল’ম্পট হায়দার আলী প্র’কাশ্যে

 

ধ’র্ষিতার মা আনজু’য়ারাকে ধ’র্ষণের হু’মকি দিচ্ছে বলে জানা গেছে। ফলে আ’তঙ্কে দিন কা’টাচ্ছে প’রিবার।

এ’লাকাবাসী বলেন, ধ’র্ষণের কথা জানাজানির পরে ধ’র্ষিতাকে এলাকার গণ্যমান্য ব্য’ক্তিগত ধ’র্ষকের বাড়িতে

নিয়ে গেলে ধ’র্ষকের পিতা হায়দার আলী, মাতা আছমা বেগম, ভাই আফজাল সরদার, ফুপু ফরিদা বেগম

 

ধ’র্ষিতাকে বে’দম মা’রপিট করে বাড়ি থেকে বে’র করে দেয়। তারা আরও বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই

জাতপুর ক্যা’ম্পের এস আই সাইদুর রহমানের ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন।

এ বি’ষয়ে জানতে চাইলে মীর জাকির হোসেন বলেন, অ’সহায় হ’তদরিদ্র প’রিবারের প্রতি যে নি’ষ্ঠুরতা

 

হয়েছে তা খুবই দুঃ’খ জনক। যে কোন বিবেকবান মা’নুষের উচিত হবে এই নি’ষ্ঠুরতার প্র’তিবাদ করা।

তালা উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল হোসেন ও তালা থানা অফিসার ই’নচার্জ মেহেদী রাসেলের

সাথে আমার কথা হয়েছে। আমাকে আশ্বস্ত করা ‘১হয়েছে অ’পরাধী যেই হোক তাকে ছাড় দেয়া হবে না।

 

এই মা’মলাটি সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি আমরা। তালা থানা অফিসার ই’নচার্জ মেহেদী রাসেল বলেন,

ধ’র্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি যতদ্রুত সম্ভব প্রধান আ’সামীকে গ্রে’ফতার

করার। চৌকস পুলিশ অফিসার কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, আশাকরি অতিশীঘ্রই আ’সামী গ্রে’ফতার হবে।

 

জানতে চাইলে মা’মলার ত’দন্তকারী ক’র্মকর্তা এস আই প্রীতিষ বলেন, মা’মলাটি ত’দন্ত পর্যায়ে আছে।

সঠিক ত’দন্তের স্বার্থে আমরা মূল আ’সামীকে গ্রে’ফতার করার চেষ্টা করছি। মূল আ’সামী গ্রে’ফতার

হলে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে। মূল আ’সামী গ্রে’ফতার হলে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com