ব’ন্দি ঘরে কেমন আছ বাবা, অনেক দিন তোমা’র বুকে ঘুমাই না (ভিডিও )

ব’ন্দি ঘরে কেমন আছ বাবা, অনেক দিন তোমা’র বুকে ঘুমাই না (ভিডিও )

ব’ন্দি ঘরে কেমন আছ বাবা? আমি তোমা’র সঙ্গে ঘুমা’তে চাই। তোমা’র সঙ্গে ঘুমাতে অনেক ভালো লাগে

বাবা। অনেক দিন তোমা’র সঙ্গে ঘু’মাই না। একা একা ঘুমাতে আমা’র অনেক ক’ষ্ট হয় বাবা।’

জানা’লার ওপাশে দাঁ’ড়িয়ে বা’বাকে লক্ষ্য করে কথা’গুলো বল’ছিল সাড়ে তিন বছরের আ’লি’শাবা

 

রহ’মান ই’বতিদা। উত্তরে বাবা ব’ললেন, ‘এইতো সো’না’মণি। শিগ’গির’ই আম’রা একস’ঙ্গে ঘুমাব মা।

তো’মাকে বুকে নি’য়ে ঘুমাব।’ এরই মধ্যে আলি’শাবা ও তার বাবার আ’বে’গঘন কথো’পক’থনের

এই ভিডিওটি সামাজিক যোগা’যোগ’মাধ্যম ফেসবুকে ভাই’রা’ল হয়েছে। বাবা-মে’য়ের কথা শুনে

অনেকেই অ’শ্রু’সিক্ত হয়েছেন।

 

আলি’শাবার বাবা আব্দুর রহমান মুকুল বরি’শাল কো’তো’য়ালি মডেল থা’না পু’লিশের ভা’রপ্রা’প্ত

কর্মক’র্তা (ওসি-ত’দন্ত)। দায়ি’ত্ব পা’লন করতে গিয়ে ক’রোনা’ভাই’রা’সে আ’ক্রা’ন্ত হয়ে’ছেন তিনি।

পরিবা’র ও প্রিয়’জ’নদের ক’রোনাভা’ই’রা’সের সংক্র’মণ থেকে ‘দূ’রে রা’খতে চিকিৎসকে’র পরা’ম’র্শ

অ’নুযায়ী বা’সার একটি রু’মে নিজে’কে ব’ন্দি করে রেখেছেন তিনি।

 

ভিডিওতে দেখা যায়, আ’লি’শাবা তার বাবার স’ঙ্গে কথা বলছে। আলি’শা’ বাবাকে বলে, ‘বাবা তুমি

কেমন আছ? আমি তো’মা’র সঙ্গে ঘুমাতে চাই। তোমা’র স’ঙ্গে ঘুমা’তে অনেক ভালো লাগে বাবা।

অনে’কদিন তোমা’র সঙ্গে ঘুমা’ই না। একা একা ঘুমাতে আমা’র অনেক ক’ষ্ট হয় বাবা।’

 

উত্তরে আলিশাবার বাবা বলেন, ‘এইতো সোনামণি। শিগগিরই আম’রা একসঙ্গে ঘুমাব মা। তোমাকে

বুকে নিয়ে ঘুমাব। তোমা’র ক’ষ্ট হয় মা। আলি’শাবা বলে হ্যাঁ। বাবা বলেন, কো’থায় ক’ষ্ট হয় মা।

আলিশা’বা বলে বু’কে ক’ষ্ট হয় বাবা।’ আবে’গঘন ৫৫ সেকে’ন্ডে’র এই ভি’ডিও বরিশাল মেট্রো’পলিটন

 

পু’লি’শের ‘বিএ’মপি মিডিয়া সেল’ নামে ফে’সবুক পেজে শু’ক্রবার দিবা’গত রাত ৩টার দিকে পো’স্ট

দেয়া হয়। কয়েক ঘ’ণ্টার মধ্যে ভিডি’ওটি ভা’ই’রাল হয়ে যায়। শনিবার দুপুর ১টা পর্যন্ত এই ভিডি’ও

সাড়ে আট হাজা’র ‘মানুষ দেখেছে। ১৪৪ জন ম’ন্তব্য করেছেন। অনেকে’ই বাবা-মে’য়ের এই ভালো’বাসা’

 

কে সম্মান জানিয়েছেন। শিগ’গিরই বাবা-মে’য়ে কোলে তুলে আদর করবে, সে দো’য়াও করেছেন কেউ কেউ।

করো’নার সংক্র’মণ ঠেকাতে বরি’ল কো’তোয়ালি মডেল থা’না পু’লি’শের সদ’স্যদের নিয়ে মাঠে রয়ে’ছেন

আ’ব্দুর রহমান একজন বলে’ছেন, ‘এটা বে’দনা’র ঘটনা। এটি ম’র্ম’স্প’র্শী। আমা’র আশা, বাবা দ্রু’ত সুস্থ

হয়ে মে’কে জ’ড়িয়ে ধ’রবে।’

 

আরেক’জন মন্তব্য করেছেন, ভিডিও দেখার পর আ’বেগা’প্লুত হয়ে পড়েছি। চোখে’র পানি ধরে

রাখা মুশ’কিল। বোঝা যাচ্ছে পু’লিশ ক’র্মক’র্তার পরিবার কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দোয়া করি

সবকি’ছুই দ্রুত ঠিক হয়ে যাবে। পু’লিশ কর্মক’র্তা আব্দুর রহমান মুকুলে’র স্ত্রী’’র নাম তাস’মিম ত্রো’পা।

২০০৯ সালে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের পর তারা নগ’রীর গো’রেস্থা’ন রো’ডের একটি বা’সায় ব’সবাস শুরু করেন।

 

বিয়ের সাত বছর পর কো’ল’জুড়ে আসে ফু’টফুটে শি’শুসন্তা’ন আলি’শাবা। সুন্দ’রভা’বে জী’বন

চলছিল তাদের। ক’রো’নার কারণে হঠাৎ এলো’মে’লো হয়ে গেল সবকিছু।

বরিশাল কো’তোয়া’লি মডেল থা’না পু’লিশের ভা’র’প্রাপ্ত কর্ম’ক’র্তা (ওসি) নুরু’ল ইস’লাম বলেন,

আব্দুর রহমান মুকুল ক’র্তব্যপ’রায়ণ একজন পু’লিশ কর্মক’র্তা। ক’রো’না পরিস্থিতির মধ্যেও

 

তিনি জন’গণের সামা’জিক দূর’ত্ব নি’শ্চিত ও আইন-শৃঙ্খলা পরি’স্থিতি স্বাভাবিক রাখতে স’দস্য’দের

তদা’রকি ও মা’ম’লা’র ত’দন্ত’কাজ চালিয়ে গেছেন। দা’য়িত্ব’পালন করতে গিয়েই তিনি ক’রোনা’য়

আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন। দোয়া করি দ্রুত সুস্থ হয়ে তিনি কজে ফিরবেন।

 

দেখু’ন সেই ভিডিও…

হোম আই’সো’লেশনে থাকা আ’ব্দুর রহ’মান মুকুল বলেন, ২৬ মে থা’নায় ছিলাম। দুপুরে কিছুটা

অ’সুস্থ’বোধ করি। বা’সায় ফিরে বি’শ্রাম নিই। হঠাৎ অনুভ’ব করি শ’রীরের ‘তাপ’মাত্রা বৃ’দ্ধি।

থা’র্মোমি’টার দিয়ে মেপে দেখি তা’পমা’ত্রা ১০২। রাতে জ্ব’র বেড়ে যায়। সঙ্গে দে’খা দেয় কা’শি ও

 

গ’লা’থা। স’ন্দে’হ হয়, ক’রো’না না তো। সে’দিন থেকেই বাসার মধ্যে আলা’দা রু’মে থা’কা শুরু করি।

জ্ব’র ও গলা’ব্য’থা বাড়লে ২৯ মে ক’রো’না টেস্ট করাই। দু’দিনের মা’থা’য় আ’ক্রা’ন্ত হওয়ার খবর জা’নতে  পারি।

কী’ভাবে আ’ক্রা’ন্ত হ’লেন এমন প্রশ্নে’র জ’বাবে তিনি বলেন, ঈদে’র আগে মা’র্কে’টে ও বাজারে সা’মাজিক

 

দূর’ত্ব নি’শ্চিতে টানা কয়েক’দিন দায়ি’ত্বপাল’ন ক’রেছি। এ সময় ভিড় ঠেকাতে মানু’ষের কা’ছাকাছি

যেতে হয়েছে। হয়’তো তখন সং’ক্রমি’ত হ’য়েছি। পু’লিশ কর্ম’ক’র্তা আ’ব্দুর রহমা’ন মুকুল বলেন,

এক ছা’দের নিচে থাক’লেও ২৬ মে থেকে একটি রুমে আ’লাদা থাকছি। মে’য়ে’টাকে কাছে পে’লেও

ছুঁতে পার’ছি না। তাকে দেখতে পাব, ধ’রতে পারব না। এটা আ’মা’র জন্য স’বচেয়ে ক’ঠিন।

 

ওকে একটু কো’লে নিতে মনটা ছটফট করে। পেশার কার’ণে জীবনে অনেক কঠিন বাস্ত’বতা’র

মু’খোমুখি হয়ে’ছি। তবে এত কঠিন বাস্ত’বতা সাম’নে আসবে ভাবিনি।

আব্দুর রহ’মান মুকুল বলেন, আলি’শাবা’কে ঘি’রেই আমা’র সব স্ব’প্ন। তাকে ঘিরে’ই আমা’র দুনিয়া।

 

রাতে দায়িত্ব’পা’লন করে বাসা’য় না ফেরা পর্যন্ত জেগে থাকতো আলি’শাবা। বাসায় ফিরলে ছুটে এসে

কোলে উঠতো। রাতে আমা’র বুকে মা’থা দিয়ে ঘু’মানো আ’লিশাবার অভ্যাস হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু গত

১২ দিন আ’লি’শাবা থেকে দূরে থাকতে হচ্ছে। আ’লি’শাবার ক’ষ্ট দেখ নি’জেকে ঠিক রাখা কঠিন হয়ে

 

দাঁ’ড়ি’য়েছে। আব্দুর রহমা’ন মুকুল বলেন, আলিশাবা প্রথম রাত অনেক কেঁদে’ছে। বাবাকে ছাড়া সে

কিছুতেই ঘু’মাবে না। তবে এখন কিছুটা সাম’লে নিয়েছে। এখন জানা’লার ওপাশে দাঁড়িয়ে আ’লি’শাবা বলে,

আল্লাহ করো’না উঠিয়ে নাও। বাবাকে সুস্থ করে দাও। বাবা সুস্থ হ’লে মা আর আমি ঈ’দের জামা পরে সেজে

প্রজা’পতির দেশে বেড়াতে যাব।

 

আব্দুর রহমান মুকু’ল বলেন, এই সময়টা বড় কঠিন। তবে এই সম’য়ে অনেক মানুষ, সহযো’গিতা

করেছে আ’ন্তরিকভা’বে। কয়ে’কজন সহ’কর্মী রান্না করে খাবা’র রেখে গেছেন, কে’উবা বাজা’র করে

দিয়ে গে’ছেন। ঊর্ধ্ব’তন কর্মক’র্তারা নিয়’মিত খোঁ’জখবর নিচ্ছেন। তারা সাহস জোগা’চ্ছেন। কি’ছুটা ভালো আছি।

 

বরিশাল মেট্রো’পলিটন পু’লি’শের কমি’শনার শাহাবুদ্দিন খান বলেন, আব্দুর রহমান মুকুলের সঙ্গে আমি’সহ

ঊর্ধ্বত’ন কর্ম’ক’র্তারা যোগা’যোগ রাখছেন। পু’লিশ হাসপা’তা’লের চিকিৎসকরা তার স্বা’স্থ্যে’র খোঁজখবর

নিচ্ছেন। তিনি সুস্থ আছেন। তিনি যাতে প্রয়োজ’নীয় চিকিৎসা পান সে বিষ’য়টি নি’শ্চিত করা হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, জ’নগণের সামা’জিক দূরত্ব নিশ্চিত ও আইন-শৃ’ঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে

মেট্রোপলিটন পু’লিশের প্রায় দুই হাজার সদস্য দি’নরাত কাজ করে যাচ্ছে’ন। নগ’রীর সর্বত্র নি’য়’মিত

টহল, করো’না’য় আ’ক্রা’ন্ত হয়ে মা’রা’ যাও’য়াদের জানা’জা ও দাফনের ব্যবস্থাও ক’রছে পু’লিশ।

 

পা’শাপাশি ক’রোনা শ’নাক্ত ব্যক্তি’দের চিকিৎসার জন্য হাসপাতা’লে নেয়া, কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা,

শ্রমজী’বী মানুষ’কে সহায়তা’, রাস্তায় জীবাণু’নাশ’ক ছি’টানো, অসহায়-কর্মহীন মা’নুষের বাড়ি বাড়ি গি’য়ে

খাবার পৌঁ’ছানো’সহ ক’রো’না প্রতি’রোধে যে মহাযজ্ঞ; তাতে গুরু’ত্বপূর্ণ’ ভূমিকা পাল’ন করে যা’চ্ছেন

 

পু’লিশ সদস্যরা। দায়িত্বপালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত কর্মক’র্তাসহ বরিশাল মেট্রো’পলিটন পু’লিশের

৯৮ জন সদস্য ক’রো”নায় আ’ক্রান্ত’ হয়েছেন। এর মধ্যে ২৪ ক’রো’না’মুক্ত হয়েছেন।

৯৮ জন সদস্য ক’রো”নায় আ’ক্রান্ত’ হয়েছেন। এর মধ্যে ২৪ ক’রো’না’মুক্ত হয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com