সরকারি ৭১ বস্তা ত্রাণের চাল জব্দ ধনবাড়ীতে!

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীর খাদ্যবান্ধব ক’র্মসূচী আওতায় ত্রাণের ৭১ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করেছে

মধুপুর উপজে’লা প্রশা’সন। রবিবার (৭ জুন) রাতে মধুপুর উপজে’লার ভাইঘাট

বাঘিল রজনীগন্ধা রাইচ প্রসেসিং মিলে অ’ভিযান চালিয়ে এই সরকারি চাল জব্দ করা হয়।

 

এ বিষয়টি উপজে’লা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা নি’শ্চিত করেছেন। রজনীগন্ধা রাইচ

প্রসেসিং মিল মালিক সাদিকুল ইসলাম আমিন জা’নান, স্থানীয় চাল ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম

খাদ্যবান্ধব ক’র্মসূচী ও ত্রাণের চাল বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে ক্রয় করে প্রসেসিং করার জন্য আমা’র

 

মিলে নিয়ে আসেন। এ খবর পেয়ে মধুপুর উপজে’লা নির্বাহী অফিসার ও মধুপুর থা’না পুলিশ

অ’ভিযান চালিয়ে ৭১ বস্তা চাল জব্দ করেন। মধুপুর উপজে’লা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা জা’নান,

স্থানীয়দের অ’ভিযোগ পেয়ে ও গো’পন সংবাদের ভিত্তিতে উপজে’লার রজনীগন্ধা রাইচ প্রসেসিং মিলে

 

অ’ভিযান চালিয়ে ৭১ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত চাল ধনবাড়ী উপজে’লা

প্রশানের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি আরও জা’নান তদন্ত সাপেক্ষে এ ব্যাপরে

প্রয়োজনীয় ব্যব’স্থা নেয়া হবে। তিনি আরও জা’নান তদন্ত সাপেক্ষে এ ব্যাপরে প্রয়োজনীয় ব্যব’স্থা নেয়া হবে।

 

বাড়ির ফ্যান ঠিক না করতে পারায় ইঞ্জিনিয়ার ছেলের সার্টিফিকেট ছিঁ’ড়ে ফেলল মা!

চারিদিকে লকডাউন! বাড়ি থেকে বেরোন নিষেধ! বাড়িতে বসে বসে সবার ই মেজাজ এর ১২ বেজে আছে।

অনেকেই খিটখিটে হয়ে যাচ্ছেন। আবার অনেকেই নিজের নানান কাজের মাধ্যমে নিজেকে ব্যাস্ত রাখছেন।

কিন্তু এর মধ্যেই যদি আপনার বাড়িতে ফ্যান খা’রাপ হয়ে যায়! আর ইলেক্ট্রিশিয়ান আসতে পারবেনা

 

বলে আপনি জানতে পারেন! আর বাড়িতেই যদি থাকে ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনিয়ার ছে’লে তাহলে তো

কোনও ব্যাপার ই না! কিন্তু এমন মুহূর্তে যদি জানতে পারেন ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার ছে’লেও

সেই ফ্যান সারাতে পারছেনা তাহলে একে গরম আরেকদিকে ছে’লের ওপর রাগ দুটোই

 

একসাথে উথলে পড়ার কথা কিনা ? ঠিক এমন টাই ঘটেছে এইপরিবারে। হঠাৎই বাড়ির ফ্যান

খা’রাপ হয়ে যাওয়ায় গরমে নাজেহাল অবস্থায় মায়ের। তখন সে তার মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার

কে ডাকে! ছে’লে মায়ের কথা মতো অনেক্ষন ধরে দেখেও সেই ফ্যান এর অ’সুবিধে খুঁজতে অক্ষম হয়।

 

তখনই ফোন করে আসেন ইলেক্ট্রিশিয়ান! সে কিছুক্ষনের মধ্যেই সেই ফ্যান কে ঠিক

করে লাগিয়ে দিয়ে চলে যায়! এর মাঝেই রাগে অ’গ্নিশর্মা হয়ে ওঠেন মা! রাগে সে

ছে’লের ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং এর সার্টিফিকেট হাতে নিয়ে ছে’লের সামনেই ছিড়ে ফেলে! !!

Check Also

Shahriyar Afsan Ovro is a young and successful digital marketing influencer

Shahriyar Afsan Ovro is an Bangladeshi music artist, entrepreneur who has made a big name …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *