আমি জীবনটা বাংলার মানুষের জন্য বিলিয়ে দিতে এসেছি : প্রধানমন্ত্রী

আমি জীবনটা বাংলার মানুষের জন্য বিলিয়ে দিতে এসেছি : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ক’রোনার সময় অনেক দেশ বাজেট দিতে পারছে না। কিন্তু আমরা

একদিকে যেমন ক’রোনা মো’কাবিলা করবো, পাশাপাশি আমরা দেশের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা

নিশ্চিত করবো। তারা যেন ক’ষ্ট না পায় সেজন্য যা যা করণীয় করে যাবো। আমি তো এখানে বেঁচে

 

থাকার জন্য আসিনি। আমি তো জীবনটা বাংলার মানুষের জন্য বিলিয়ে দিতে এসেছি, এটাতে তো

ভ’য় পাওয়ার কিছু নেই। ভ’য়ের কী আছে! আজ বুধবার জাতীয় সং’সদে শো’ক প্রস্তাবের ও’পর আলোচনায়

অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক’রোনাভা’ইরাসেে মরি, গু’লি খেয়ে মরি,

 

অ’সুস্থ হয়ে মরি, মরতে একদিন হবেই। এই মৃ’ত্যু যখন অবধারিত সেটাতে ভ’য় পাওয়ার কিছু নেই।

আমি ভ’য় পাইনি। কখনো ভ’য় পাবো না। আমি যখন বাংলাদেশে ফিরে আসি, সেটা ছিল সেই বাংলাদেশ,

যেখানে আমার বাবা, ভাই, বোন, শি’শু ভাইটিকে পর্যন্ত হ’ত্যা করা

 

হয়েছিল। আমাদের পরিবারের বহুজনের সদস্য বু’লেটবিদ্ধ, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী

বু’লেটবিদ্ধ বা স্প্লিন্টার নিয়ে বেঁচে আছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক’রোনাভা’ইরাসেের কারণে সবারই

কাজ করার সুযোগ ছিল না। যারা নি’য়মিত চাকরির বেতন পেতেন তার বাইরে কিছু লোক থাকেন,

 

যারা ছোটখাট কাজ করে খান, ব্যবসা করে খান, এমন প্রতিটি মানুষের খবর নিয়ে নিয়ে তাদের ঘরে

ঘরে খাবার দেয়ার ব্যবস্থা করি। এমনকি রিকশার পেছনে যারা আর্ট করে, সাংস্কৃতিককর্মী,

তাদেরকে কিছু স’রকারিভাবে, কিছু আমাদের ত্রাণ তহবিল থেকে সাহায্য-সহযোগিতা করেছি।

 

আর্টিস্ট বা শিল্পী কিংবা শিল্পীদের সহযোগিতা করে যারা, তাদের কথা কেউ ভাবে না। এই ভাবনাটা

কিন্তু আমার নিজের না, সত্যিকারের কথা বলতে কি- এটা শেখ রেহা’নার চিন্তা। সে-ই কিন্তু খুঁজে

খুঁজে তাদের সাহায্য দেয়ার ব্যবস্থা করেছে। তিনি বলেন, আল্লাহ জীবন দিয়েছেন, একদিন সে জীবন

 

নিয়ে যাবেন। আর আল্লাহ মানুষকে কিছু কাজ দেন। সেই কাজটুকু যতক্ষণ পর্যন্ত শেষ না হবে ততক্ষণ হয়তো

আমি কাজ করে যাব। যখন কাজ শেষ হয়ে যাবে, সময় শেষ হবে, তখন আমি চলে যাব। তাই এই নিয়ে চিন্তার

কিছু নেই। যখন কাজ শেষ হয়ে যাবে, সময় শেষ হবে, তখন আমি চলে যাব। তাই এই নিয়ে চিন্তার কিছু নেই।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com