শুধু লাদাখ নয় ভারতের আরও যে ৪ প্রদেশ দ’খল করতে চায় চীন

শুধু লাদাখ নয় ভারতের আরও যে ৪ প্রদেশ দ’খল করতে চায় চীন

পূর্ব লাদাখে গোটা গালওয়ান ভ্যালি নিজেদের এলাকা বলে দাবি করছে চীন। বিগত কয়েক দশকে

সরাসরি যে দাবি করেনি, এখন হঠাত্‍ উঠে পড়ে লেগেছে চীন। আর ঠিক এখানেই সিঁদুরে মেঘ

দেখছে তিব্বতের নি’র্বাসিত সরকার। চীনের আ’গ্রাসন দেখেই ভা’রতকে স’তর্ক করলেন সেন্ট্রাল

 

তিব্বত অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের প্রেসিডেন্ট লবসাং সাংগে।তিনি বোঝালেন, লাদাখ সীমা’ন্তে

চীনের কা’র্যকলাপ কিন্তু চীনের ‘ফাইভ ফি’ঙ্গার স্ট্র্যাটেজি’-র অংশ।

যে স্ট্র্যাটেজি শুরু করেছিলেন পিপলস রি’পাবলিক অফ চায়না-র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মাও সে তুং।

 

সাংগের কথায়, ‘যখন চীন তিব্বত দ’খল করল, মাও সে তুং-সহ অন্যান্য চীনের নেতারা বলেছিলেন,

তিব্বত হল হাতের তালু, যা আমাদের দখল করতেই হত। এরপর আমরা বাকি পাঁচ আঙুল বাড়াবো।

প্রথম আঙুলটি হল লাদাখ। বাকি ৪টি আঙুল হল নেপাল, ভুটান, সিকিম ও অরুণাচলপ্রদেশ।’

 

২০১৭ সালের ডোকলাম স্ট্যান্ড-অফ প্রসঙ্গ টেনে তিনি জানান, লাদাখের এই আ’গ্রাসনও সেই

ফাইভ ফিঙ্গার স্ট্র্যাটেজির-ই অংশ। তিব্বতের নেতারা ভারতকে গত ৬০ বছর ধরেই এটাই

স’তর্ক করে আসছেন। নে’পাল, ভু’টান ও অরুণাচলের উপরেও চা”প রয়েছে।

 

১৯৬২ সালের যু”দ্ধের পর থেকে এই প্রথম গোটা গালওয়ান ভ্যালির উপরে প্রথম নিজেদের

আধিপত্য দাবি করল চীন। শান্তিপূর্ণ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখাকে রক্তাক্ত করে দিল।সুদীর্ঘ চিন

সী’মান্তে র’ণনীতি অমূল বদলে ফেলছে ভারতের স’শস্ত্র বাহিনী।

 

কাশ্মীর তথা লাদাখ, হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, সিকিম, অরুণাচল প্রদেশ— এতগুলি রাজ্যকে

ছুঁ’য়ে রয়েছে চিনের সীমা’ন্ত। এই লম্বা সীমান্তরেখায় এক সময় ভারতের নীতি ছিল শুধু আ’ত্ম’রক্ষা।

কিন্তু প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞ এবং সেনাকর্তারা এখন এক সুরে বলছেন, সেই যুগ অ’তীত। আ’ত্মরক্ষা শুধু নয়,

 

বি’ধ্বংসী প্রতি-আ”ক্রমণের স’ক্ষমতাও তৈরি হয়ে গিয়েছে। আ”ক্রমণ করা লক্ষ্য নয়।

কিন্তু হা”মলা হলে, পা’ল্টা হা”মলায় চিনের ভিতরে যাতে ঢুকে যেতে পারে ভারতীয় বা’হিনীও,

সেই লক্ষ্যেই এখন এগোচ্ছে নয়াদিল্লি। চিন-ভারতের বি”বাদ মূলত সীমান্ত নিয়েই।

 

চিনের এমন প্রায় কোনও প্রতিবেশী নেই, যে দেশের সঙ্গে সী”মান্ত নিয়ে চিনের বি”রোধ নেই।

ভারতের সঙ্গেও চিনের বি”বাদ সুবিদিত। ১৯৬২ সালে ভারত আর চিন যু”দ্ধেও জ’ড়িয়েছিল।

সে সময়ে নেহাতই দুর্ব”ল ভারতীয় বাহিনী বিভিন্ন ফ্রন্টে চিনের কাছে প”র্যুদস্ত হয়েছিল।

 

তার পরও দীর্ঘ দিন চিন সীমান্তে উ”পযুক্ত সামরিক পরিকাঠামো গড়ে তুলতে পারেনি ভারত।

কিন্তু গত এক দশকে ছবিটা অনেকটা বদলে গিয়েছে। চিন সীমান্তে খুব নীরবে নতুন

র”ণনীতির রূপায়ণ শুরু করে দিয়েছে ভা”রত। র”ণনীতির রূপায়ণ শুরু করে দিয়েছে ভা”রত।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com