আওয়ামী লীগ নেত্রীর সাথে কলেজ অধ্যক্ষের অ’নৈতিক ভিডিও ফাঁ’স

আওয়ামী লীগ নেত্রীর সাথে কলেজ অধ্যক্ষের অ’নৈতিক ভিডিও ফাঁ’স

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজে’লা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রীর সাথে বিবিয়ানা মডেল কলেজের অধ্যক্ষ

নৃপেন্দ্র চন্দ্র তালুকদারের ৮ মিনিট ৪ সেকেন্ডের অসামাজিক ভিডিও সামজিক মাধ্যমে ভাই’রাল হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে বিবিয়ানা কলেজ এলাকার বাসিন্দাদের একাধিক ফেসবুক আইডি থেকে অধ্যক্ষের

নানা অ’পকর্মের ফিরিস্তিসহ ভিডিওটি ভাই’রাল হয়।

 

এ নিয়ে দেশ-বিদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরাসহ উপজে’লার সর্বত্র তুমুল সমালোচনার ঝড় উঠে।

সন্ধ্যা নাগাদ সচেতন মহলে নানা গুঞ্জনসহ অধ্যক্ষের অ’পসারণের দাবী তুলেছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দিরাই উপজে’লা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও কুলঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের

 

সাবেক সদস্য রাজরানী চক্রবর্তীর সাথে ৭/৮ বছর পুর্বে অধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র চন্দ্র তালুকদার এর পর’কী’য়া স’ম্পর্ক

গড়ে উঠে। ইউপি সদস্য থাকাকালীনই অধ্যক্ষের প্র’রোচনায় স্বামীর সাথে স’ম্পর্ক ছিন্ন হয় রাজধানী চক্রবর্তীর।

একপর্যায়ে গ্রামের বাড়ি ছেড়ে সিলেট শহরে পাড়ি জমান তিনি। সেখানে বাসা ভাড়াসহ যাবতীয় খরচ বহন করেন

 

নৃপেন্দ্র তালুকদার। তবে এই অ’বৈধ স’ম্পর্কের বিষয়টি সহ’জে মেনে নিতে পারেননি রাজরানীর স্বামী দুই

সন্তানের জনক মধূসুদন চক্রবর্তী। স্বামী স্ত্রী’ দুজনেই মা’মলা মোকদ্দমায় জড়িয়ে পড়েন।

গত বছর স্ত্রী’ রাজরানী চক্রবর্তী কর্তৃক দায়ের করা নারী নি’র্যাতন মা’মলায় পু’লিশ কর্তৃক গ্রে’ফতার হয়ে

 

দীর্ঘদিন হাজতবাস করেন তার স্বামী। এনিয়ে এলাকায় বিভিন্ন সময়একাধিক সালিশ বৈঠক হয়। বিষয়টি

নিয়ে রাজরানীর স্বামী স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজে’লা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের কাছে বিচারপ্রার্থীও হন।

কিন্তু উপজে’লা আওয়ামীলীগের শীর্ষ পর্য়ায়ের নেতৃবৃন্দের সাথে রাজরানীর সখ্যতা থাকায় সুবিচার পাননি বলে

 

অ’ভিযোগ করেন স্বামী মধুসুদন চক্রবর্তী। এই পর’কী’য়ার স’ম্পর্কটি বারবারই ধামাচাপা দিয়ে রাখার চেষ্টা

করা হয়। বিধিবাম বিগত জাতীয় নির্বাচনের প্রাক্কালে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ড. জয়া সেনগুপ্তার কুলঞ্জ

ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারাভিযানে গেলে সিলেট থেকে এসে যোগ দেন রাজরানী চক্রবর্তী।

 

ধীতপুর বোয়ালিয়া বাজার এলাকায় দিনভর প্রচারণা শেষে পর’কী’য়া প্রে’মিক ভাইটগাঁও গ্রামে নৃপেন্দ্র

দাসের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে অনশন করেন রাজরানী। ওই দিন রাতভর সেখানে অবস্থানের পর উপজে’লা

আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে নানা শর্তসাপেক্ষে তাকে সেখান থেকে বিদায় করা হয়।

 

এরপর থেকে শর্তমতে অধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র দাস সিলেটে রাজরানীর যাবতীয় ভরণপোষন করে আসছেন।

অ’পরদিকে এবিষয়টি মেনে নিতে পারেননি তিন সন্তানের জননী নৃপেন্দ্র তালুকদারের স্ত্রী’।

তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে বিষয়টি সমাধান করার জন্য বারবার প্রস্তাব দেন। এদিকে

 

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০ টার পর রাজরানী চক্রবর্তীর ফেসবুক আইডি থেকে ‘কারো মৌলিক অধিকাওে

হাত দিয়ে কথা বলা ঠিক না’ লিখে পোস্ট করেন। এরপর থেকে সামজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের

বিভিন্ন আইডি থেকে অধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র চন্দ্র তালুকদার ও রাজরানী চক্রবর্তীর আ’পত্তিকর ভিডিওটি ভাই’রাল

 

হতে থাকে। বিবিয়ানা মডেল কলেজের জিবি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মিলন

মিয়া বলেন, দুজনের পর’কী’য়ার স’ম্পর্কের বিষয়টি অধ্যক্ষের পরিবারসহ এলাকার সবার জানা আছে।

গত সংসদ নির্বাচনের সময় রাজরানী চক্রবর্তী বিয়ের দাবীতে নৃপেন্দ্র তালুকদারের বাড়িতে অনশন করেছিল।

 

উপজে’লা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোশাররফ মিয়ার মধ্যস্থতায় তাকে বাড়ি

থেকে বিদায় করা হয়। অধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র তালুকদারের বড় ভাই বিবিয়ানা মডেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা পবিত্র

মোহন দাস তালুকদার বলেন, রাজরানী চক্রবর্তী একজন বেশ্যা নারী, তার সাথে আমাদের কোনো আপোষ নেই।

 

রাজরানী চক্রবর্তীর স্বামী মধু সূধন চক্রবর্তী জানান, সে আমাকে ছেড়ে অনেক আগেই চলে গেছে। অধ্যক্ষ

নৃপেন্দ্র তালুকদারের প্র’রোচনায় সে আমাকে একাধিকবার মিথ্যা মা’মলা দিয়ে হয়’রানি করেছে। আমি ঠাকুর

মানুষ এর চেয়ে আর বেশি কিছু বলতে চাইনা। সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে দু জনের অসামাজিক ভিডিওটি

 

ভাই’রাল হওয়ার পর থেকে অধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র চন্দ্র তালুকদারের মোবাইল ফোনটি বন্ধ রয়েছে। রাজরানী

চক্রবর্তী মোবাইলে কল দিলেও তিনি ধরেননি। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিবিয়ানা মডেল কলেজ পরিচালনা

কমিটির সভাপতি ও দিরাই উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা মোহাম্ম’দ সফি উল্লাহর অফিসিয়াল মোবাইলে বারবার

কল দিলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com