করো’নাকালে বেকার শ্রমিকদের জন্য সুখবর দিল সরকার!

করো’নাকালে বেকার শ্রমিকদের জন্য সুখবর দিল সরকার!

বেকার শ্রমিকদের তিন হাজার টাকা করে দিবে সরকার। তবে এ অর্থ পাবেন রফতানিমুখী উৎপাদনশীল

শিল্প পোশাক খাত এবং চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য খাতের কাজ হা’রানো বেকার শ্রমিকরা।

এজন্য সরকারের আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করা হবে। জানা গেছে, ইইউ ও জার্মানির দেয়া

 

অর্থে এ প্যাকেজ বাস্তবায়ন করা হবে। তিন মাস পর্যন্ত শ্রমিকরা এ অর্থ পাবেন। আগামী মাসেই (সেপ্টেম্বর)

এ প্যাকেজ ঘোষণা হতে পারে। পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট

অব গভর্ন্যান্স ডেভেলপমেন্টের (বিআইজিডি) এক যৌথ জ’রিপ অনুযায়ী, জুনে এসে অ’তি দরিদ্র মানুষের আয়

 

কমেছে ৩৪ শতাংশ। অর্থাৎ ফেব্রুয়ারিতেও যারা প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করতেন, জুনে তাদের আয় ৩৪ টাকা

কমে ৬৬ টাকায় দাঁড়িয়েছে। এতে অ’তি দরিদ্ররা আরো দরিদ্র হয়ে পড়েছেন। তিন বেলা খাবার জোটানোই এখন

তাদের প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। জ’রিপে আরো বলা হয়, করো’নার শুরুতে গত এপ্রিল মাসে দেশে দারিদ্র্যের

 

হার ৪৩ দশমিক ৮ শতাংশ হলেও জুন মাসে এসে তা দাঁড়িয়েছে ৪২ দশমিক ৮ শতাংশে। জুন মাসে লকডাউন

কিছুটা শিথিল থাকায় এপ্রিলের তুলনায় দারিদ্র্য ১ শতাংশ কমেছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি আয় কমেছে

রিকশাচালকদের। তাদের প্রায় ৫৪ শতাংশের আয় কমেছে। এরপরই রয়েছে ছোট ছোট ব্যবসায়ী, পরিবহন ও

 

অদক্ষ শ্রমিকরা। পিপিআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, বেঁচে থাকার তাগিদে মানুষ

এখনো বাধ্য হয়ে জীবনের ঝুঁ’কি নিয়ে কাজে বের হচ্ছেন, এর কোনো বিকল্প নেই। কেননা করো’না মহামা’রিতে

সরকারি সহায়তা খুবই অ’প্রতুল। সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিতে দরিদ্র মানুষকে যে সহায়তা দেওয়া হয়েছে, তা এক

 

ধরনের টোকেন সহায়তা। নগদ সহায়তা নিয়ে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে। মাত্র ১৫ শতাংশ মানুষ সরকারি

সহায়তা  পেয়েছে। এই ১৫ শতাংশ সবাই আবার সাহায্য পাওয়ার যোগ্য ছিল না।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com