কাশ্মীরে গু’লি’তে ৭ স্বা’ধী’নতাকা’মীস’হ নি’হ’ত ৮

কাশ্মীরে গু’লি’তে ৭ স্বা’ধী’নতাকা’মীস’হ নি’হ’ত ৮

 

ভারতের নিয়ন্ত্রণাধীন কাশ্মীরের ৭ স্বাধীনতাকামী ও এক সে’না সদস্য নি’হ’ত হয়েছেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৮

আগস্ট) দিনগত রাত থেকে শনিবার (২৯ আগস্ট) সন্ধ্যা পর্যন্ত গু’লি’তে নি’হ’তের এ ঘটনা ঘটেছে।

 

 

নি’হ’তদের মধ্যে কাশ্মীর স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন জেলা পর্যায়ের নেতা রয়েছেন।

কাশ্মীরের পু’লিশ জানিয়েছে, শনিবার (২৯ আগস্ট) সকালে পুলওয়ালামা জেলার একটি পাহাড়ের গু’হায়

অভিযানের সময় এক সেনা সদস্যসহ ৪ জন নি’হ’ত হন। ঘটনাস্থল থেকে একটি রাইফেল ও দুটি পি’স্ত’ল

 

উ’দ্ধা’রের দাবি করে পু’লিশ। এর আগে শুক্রবার (২৮ আগস্ট) সোপিয়ান জেলায় অভিযানের সময়

আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর গু’লি’তে ৪ স্বাধীনতাকামী নি’হ’ত হন। একই সঙ্গে একজনকে আ’ট’ক করা হয় বলে

 

জানানো হয়। এসময় দুটি সংক্রিয় রাইফেল ও ৩টি পি’স্ত’ল উ’দ্ধা’র করা হয়। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এ

পর্যন্ত জম্মু-কাশ্মীরে ভারতীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী অন্তত ১৮০ জনকে বিভিন্ন অভিযানের নামে হ’ত্যা’ করে

বলে জানায় অস্ট্রেলিয়া ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম এবিসি নিউজ। সংবাদমাধ্যমটি দাবি করে, নি’হ’তদের মধ্যে

 

অর্ধেকের বেশি মানুষ গত ৪ থেকে ৬ মাসের মধ্যে বিভিন্ন স্বাধীনতাকামী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিল। কাশ্মীরের

বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর থেকেই ওই অঞ্চলের তরুণদের মধ্যে স্বাধীনতার দাবি চড়াও হতে থাকে।

স্বাধীনতা দাবি করা কাশ্মীরের সশস্ত্র গোষ্ঠী আল বদরের উদ্ধৃতি দিয়ে এবিসি নিউজ জানায়, জানুয়ারি থেকে

 

সরকারি বাহিনীর অন্তত ৬৪ সদস্য বিভিন্ন সময় তাদের সঙ্গে সং’ঘ’র্ষে নি’হ’ত হয়েছেন। আর তাদের নি’জেদের

৪৬ জন নি’হ’ত হয়েছেন। কাশ্মীরকে কেন্দ্র করে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্তে দীর্ঘদিন ধরে যু’দ্ধাব’স্থা

বিরাজ করছে। এতে চলতি বছরে নানা সময় সং’ঘ’র্ষে কয়েক ডজন সেনা ও বেসামরিক লোক নি’হ’ত হয়েছেন।

 

ভারতীয় উপ-মহাদেশের মু’স’লি’মরা মনে করে কাশ্মীর পাকিস্তানের অধীনে থাকা উচিৎ এবং সেখানকার স্থানীয়

কাশ্মীরের মানুষও পাকিস্তানের অধীন অথবা স্বাধীনতা যেকোনো একটির পক্ষেই কথা বলছেন। তবে বর্তমানে

তাদের দাবি স্বাধীনতা ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। এ দিকে ভারতের অভিযোগ কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামীদের

 

যু’দ্ধের প্’রশিক্ষণ দিচ্ছে পাকিস্তান। তবে, পাকিস্তান সেটি প্রত্যাখ্যান করে আসছে। ভারতের সংবি’ধানের ৩৫-ক

ধারা ও ৩৭০ অনুচ্ছেদ কাশ্মীরকে যে মর্’যাদা দিয়েছে তা বাতিল করা হয় গত বছর। ৩৭০ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জম্মু

 

ও কাশ্মীরের এমন এক স্বায়ত্তশাসন রয়েছে যা ১৯৪৭ সালের পর দক্ষিণ এশিয়ার আর কোনো দেশের রাজ্য পায়নি।

অনুচ্ছেদ ৩৭০ ভারতীয় রাজ্য জম্মু ও কাশ্মীরকে নিজেদের সংবিধান এবং একটি আলাদা পতাকার স্বাধীনতা

 

দিয়েছে। এ ছাড়া পররাষ্ট্র সম্পর্কিত বিষয়াদি, প্রতিরক্ষা এবং যোগাযোগ বাদে অন্য সব ক্ষেত্রে স্বাধীনতার

নিশ্চয়তাও দিয়েছে। এটি বাতিল করায় কাশ্মীরের জনগণ স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে আন্দোলন শুরু করে।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com