মুসলিম বিশ্বের নেতাদের ঐক্যের ডাক দিলেন ইমরান খান

মুসলিম বিশ্বের নেতাদের ঐক্যের ডাক দিলেন ইমরান খান

ইসলামফোবিয়া ছড়ানোর বিরু’দ্ধে মুসলমা’নদের স’ম্মি’লিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের

প্রধা’নম’ন্ত্রী ইমরান খান। এজন্য তিনি মুসলিম বিশ্বের নেতাদের কাছে একটি চিঠি লিখেছেন।

বার্তা সং’স্থা পার্স টুডে জানায়, বুধবার লেখা ওই চিঠিতে ইমরান বলেন, ‘স’ম্প্রতি নেতৃত্ব পর্যায় থেকে

 

 

যেস’ব বক্তব্য দেওয়া হয়েছে এবং পবিত্র কুরআন ও বিশ্বনবী (সা.)-কে অ’বমা’ননা করার যে ঘট’না ঘটেছে তা

মূলত ফ্রান্সসহ ইউরোপীয় দেশগুলোতে ইসলামফোবিয়া (ইসলামভী’তি) বেড়ে চলারই প্রতিফলন।

 

এদিকে পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় লাহোর শহরে গতকাল দেওয়া এক বৃক্ততায় ইমরান বলেন, ফ্রান্স ও পশ্চিমা

দেশগুলোতে মুসলমা’নদের জী’বনযাত্রা কঠিন হয়ে পড়েছে। ধর্মপালনকারীদের স্পর্শকাতর বি’ষয়গুলো

বিবেচনায় নেওয়া উচিত।

 

বিশ্বনবী (সা.)-কে অ’বমা’ননাসহ মুসলমা’নদের প্রতি বৈষম্য ও না’রীদের হিজাব পরার অনুমতি না দেওয়ায়

পশ্চিমা শাসকদের স’মালোচনা করেন ইমরান। এর আগে বিশ্বনবী (সা.)-কে অ’বমা’ননা করে কার্টুন প্রকাশের

পক্ষে অবস্থান নেওয়ায় ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমা’নুয়েল ম্যাক্রোঁর কঠোর স’মালোচনা করেন ইমরান খান।

 

ঐক্য প্র’তি’ষ্ঠায় মুসলিম দেশের নেতাদের ইমরান খানের চিঠি: অমুসলিম দেশগুলোতে ক্রমবর্ধমা’ন

ইসলামবিদ্ধেষের বিরু’দ্ধে স’মন্বিতভাবে প’দক্ষেপ নেয়ার জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশের নেতাদের কাছে

চিঠি লিখেছেন পাকিস্তানের প্রধা’নম’ন্ত্রী ইমরান খান। দেশটির প্রধা’নম’ন্ত্রীর কার্যালয় এ ত’থ্য জানিয়েছে।

 

বিবৃতিতে অনুযায়ী বুধবার থেকে চিঠি ইস্যু করা শুরু করা হয়েছে। কোন কোন দেশের রাষ্ট্র বা সরকার প্রধানদের

এ চিঠি পাঠানো হচ্ছে তা জানা যায়নি। গত সপ্তাহে পাকিস্তানের প্রধা’নম’ন্ত্রী ইমরান খান ফরাসি প্রেসিডেন্ট

ইমা’নুয়েল ম্যাক্রোঁর বিরু’দ্ধে ইসলামবিদ্ধেষ উ’সকে দেয়ার অ’ভিযোগ তুলেন। ফরাসি সরকারের

 

তথাকথিত ইসলামি বিচ্ছিন্নতাবাদ মোকাবিলার ঘো’ষণার প্রেক্ষাপটে তিনি এ অ’ভিযোগ আনেন। সেই

ধা’রাবাহিকতায় মুসলিম দেশের নেতাদের কাছে ইসলামবিদ্ধেষ রুখে দাঁ’ড়াতে স’মবেতভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের

আহ্বান জানালেন।

 

মুসলমা’নদের ধর্মীয় শিক্ষাপ্র’তি’ষ্ঠানকে মতাদর্শ শিক্ষাকেন্দ্র বলে মন্তব্য করেন ম্যাক্রোঁ। মতপ্রকাশের স্বাধীনতার

ভিত্তিতে ইসলামকে অস’ম্মা’নের পক্ষে অবস্থান নেন তিনি। তার এমন ন্যক্কারজনক কর্মকাণ্ডে মুসলিম বিশ্বে

ক্ষো’ভ, নি’ন্দা এবং প্র’তিবাদের ঝড় উঠে। ডাক দেয়া হয় ফরাসি পণ্য বর্জনের।

 

চলতি মাসের শুরুতে মহানবী মুহা’ম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন শ্রেণিকক্ষে প্রদর্শন করে ফরাসি শিক্ষক

স্যামুয়েল পেটি। পরে তিনি হ’ত্যাকা’ণ্ডের শি’কার হন।বুধবার চিঠিতে মুসলমা’নদের বিরু’দ্ধে ক্রমবর্ধমা’ন হা’ম’লা

এবং ইসলামবিদ্ধেষ মোকাবিলায় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোর নেতাদের এক হওয়ার আহ্বান জানান ইমরান

 

খান। চিঠিতে ফ্রান্সের নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, পশ্চিমা দেশগুলোর নেতৃস্থানীয় পর্যায়ের বিবৃতিতে

স্প’ষ্ট যে ইউরোপে ইসলামবিদ্ধেষ বাড়ছে। সেখানে বস’বাস করা বহু মুমলমা’ন এখন ভ’য়াবহ চ’ক্রের মধ্যে আছে।

বলেন, ওইস’ব দেশের রাষ্ট্রনেতারা এখনো বুঝতে পারেনি, বিশ্বের মুসলমা’নদের এ ভালোবাসা, শ্রদ্ধা শুধুমাত্র

 

মহানবী মুহা’ম্মদ (সা.) এবং পবিত্র গ্রন্থ কোরআনের জন্য। ইমরান খান বলেন, আল্লাহর নবী এবং পবিত্র গ্রন্থ

কোরআনকে ভালোবাসা, শ্রদ্ধা করার কারণে মুসলমাদের বিরু’দ্ধে চ’ক্রাকারে ভ’য়াবহ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মহানবী মুহা’ম্মদ (সা.) এবং কোরআনকে অপমা’নের প্র’তিবাদ জানানো হয়েছে, আর তারা প্র’তিবাদকে সহিং’স

 

কর্মকাণ্ড আখ্যা দিয়েছে। নবী আর কোরআনের অপমা’নকে অভিহিত করছে তথাকথিত বাকস্বাধীনতা হিসেবে!

vমুসলমা’নদের প্রান্তীকরণ করা হচ্ছে। সেখানে জায়গা দেয়া হচ্ছে উগ্রাবদী এবং কট্টর

ডানপন্থিদের। সরকারিভাবে প্রিয় নবীকে অস’ম্মা’ন করা হচ্ছে। এস’বের প্র’তিবাদে ক্ষো’ভ, নি’ন্দা জানিয়েছে

 

সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমা’ন দেশগুলো। বলেন ইমরান খান। গত সপ্তাহে ফেস’বুকের প্র’তি’ষ্ঠাতার কাছে পাঠানো চিঠির

বি’ষয়ও তুলে ধরেন ইমরান খান। সেখানে তিনি মহানবীর ব্য’ক্তিত্ব এবং কোরআনকে হলো’কাস্টের মতো

বিবেচনার আহ্বান জানান। বাকস্বাধীনতার নামে কারো অ’নুভূ’তিকে অস’ম্মা’ন, প্রশ্ন তোলা, ব্যঙ্গ করা উচিত নয়

 

বলে মন্তব্য করেন তিনি। ২০১৮ সালে ক্ষ’ম’তায় আসার পর থেকে ব্য’ক্তিগত এবং সরকারিভাবে বিভিন্ন পর্যায়ে

মুসলমা’নদের বি’রুদ্ধে আ’ক্র’মণের বি’ষয়টি উত্থাপন করে আসছেন ইমরান খান। বিশেষভাবে জাতিসংঘের

সাধারণ অধিবেশনের ভাষণে ইসলামবিদ্ধেষ এবং মু’সলমা’নদের বিরু’দ্ধে আ’ক্র’মণের বি’ষয়গুলো গু’রুত্বের

সঙ্গে তুলে ধরেন তিনি।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 NewsTheme
Design BY jobbazarbd.com