পেয়ারা পাতার ব্যাবহারে৩ দিনে সারুন চুল পড়া

চুল পড়া নাকি স্বা’ভাবিক একটি ব্যাপার, এমনটাই বিশেষজ্ঞদের মত। তবে তা দিনে ১০০ টা পর্যন্ত। এর চেয়ে বেশিও হলে তা চিন্তার বিষয়। ঘন ঘন এমন চুল ওঠার ফলে চুলের গোছা পাতলা হয়ে যায়। মাথার তালুতে জায়গায় জায়গায় ফাঁকা হয়ে যেতে থাকে।

 

অবহেলা এবং অযত্নের এমনটা হয়ে থাকে। এছাড়াও দূষণ, খাবারের স’মস্যা, ঘুম কম হওয়া, দু’শ্চিন্তা তো নিত্যদিনের সঙ্গী। এসব কারণেই মূলত অতিরি’ক্ত চুল পড়ার স’মস্যা হয়ে থাকে। চুল ঝরে যাওয়া আ’সলে

 

একেবারে প্রাকৃতিক একটি প্রক্রিয়া। চুল ঝরে যাবে এবং আবার নতুন চুল গজাবে, এটাই স্বা’ভাবিক। তবে অনেকেরই চুল খুব বেশি ঝরে যাচ্ছে। চুল পড়া কমাতে নিয়মিত চুলে তেল ব্যবহার করুন। সেই স’ঙ্গে ঘরোয়া

 

একটি প্যাক ব্যবহার ক’রতে পারেন। এতে চুল পড়া ব’ন্ধের পাশাপাশি চুল সুন্দর ও মসৃণ হতে সহায়তা করবে। চুল পড়া ব’ন্ধে পেয়ারা পাতার কা’র্যকারিতা র কথা আম’রা সবাই কমবেশি জানি। এটি চুল পড়া ব’ন্ধে খুবই কা’র্যকরী। তাহলে চলুন জে’নে নেয়া যাক কীভাবে ব্যবহার করবেন পেয়ারা পাতা-

 

যা যা লাগবে
এক মুঠো পেয়ারা পাতা, পানি এক লিটার।

যেভাবে তৈরি করবেন
একটি পাত্রে পানি জ্বাল দিতে দিন। পানি ফুটে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ফুটে এলে এতে পেয়ারা পাতা দিয়ে দিন। পেয়ারা পাতা দিয়ে ২০ মিনিট জ্বাল দিন। ২০ মিনিট পর নামিয়ে ফেলুন।

 

 

যেভাবে ব্যবহার করবেন
প্রথমে চুল ভালো করে শ্যাম্পু করে নিন। তবে কন্ডিশনার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। চুল কিছুটা শুকিয়ে এলে চুল বেণী করে তারপর পেয়ারা পাতার পানি ঢালুন। পানিটি মাথার তালুতে কমপক্ষে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন এবং ২ ঘণ্টা রেখে তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

 

 

কতদিন পর পর ব্যবহার করবেন
যদি চুল পড়া স’মস্যা অনেক বেশি থাকে। তবে সপ্তাহে তিনবার ব্যবহার করুন এটি চুল পড়া ব’ন্ধ করবে। আর যদি চুল শাইনি সিল্কি করে তুলতে চান তবে সপ্তাহে দুইবার এটি ব্যবহার করুন।

 

 

Check Also

বিয়ের পর ছেলে-মেয়ে মো’টা হয় কেন?

বিয়ের পর মেয়েরা মোটা হয়ে যায় তার কারন হল মেয়েদের শ’রীরে তখন চর্বি জমতে শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *