প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত পানি পান করলে যেসব স’মস্যা দেখা দেয়……

অতিরিক্ত পানি পানে শুধু সুফল নয় কু’ফলও আছে- পানি ছাড়া কোন জীবই বাঁ’চতে পারে না। জীবন ধারণ থেকে শুরু করে এর প্রতিটি পরতে পানির বিকল্প নেই। আবার দূ’ষিত পানি জীবনহানির কারণ। যে পানি জীবন-ম”রণের স’ঙ্গে এমন করে ওতপ্রোতভাবে জড়িত সে ব্যাপারে সবার সচেতন হওয়া একান্তই জরুরি।

 

তেমনি একটি জরুরি বিষয়ের অবতারণা করেছেন একদল ব্রিটিশ বিজ্ঞানী। তাদের সমীক্ষা রিপোর্ট এতদিনের পুরনো ধারণা ভে”ঙে দিয়েছে। তাদের মতে, স্বাস্থ্য উন্নয়নের জন্য মা’ত্রাতি’রিক্ত পানি পানে সুফল রয়েছে খুব কমই। একই সঙ্গে তারা মা’ত্রাতি’রিক্ত পানি পানে নিরুৎসাহিতও করেছেন।

 

এই গরমে পানিশূন্যতা শরীরের জন্য যেমন ঝুঁ’কিপূর্ণ। আবার অতিরিক্ত পানি পানও শরীরের জন্য সমান ঝুঁ’কিপূর্ণ। কী করে বুঝবেন অতিরিক্ত পানি পান করছেন। আপনি যদি সবসময় পানির বোতল সঙ্গে রাখেন এবং তা খালি হওয়া মাত্রই আবার পূর্ণ করে থাকেন, তাহলে হয়তো আপনি বেশি পানি পান করে থাকেন।

আপনার শরীরের জন্য সত্যিই বেশি পানি পান করা প্রয়োজন কিনা তা জানার সেরা উপায় হচ্ছে, তৃষ্ণা পেয়েছে নাকি পায়নি সে ব্যাপারে সচেতন থাকা। স্বাস্থ্যসম্মত পরিমাণ পানি পান করলে মূ”ত্রের রং হালকা স্বচ্ছ হলদে হয়।

 

অনেকে মনে করেন মূত্রের রং পরিষ্কার স্বচ্ছ হলে তা দেহের সুস্থ অবস্থার লক্ষণ, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে মূত্রের মধ্যে কোনো রং না থাকাটা আপনার বেশি পানি পান করার একটা লক্ষণ প্রকাশ করে।

 

প্রায়ই গভীর রাতে প্রস্রাবের বেগ পাওয়ায় ঘুমে ভেঙে যাচ্ছে, তাহলে বুঝতে হবে বেশি পানি পান করছেন। স্বাভবিক অবস্থায় সারা দিনে ৬-৮ বার প্রস্রাব হয়। যদি ১০ বারের বেশি প্রস্রাব হয় তাহলে তা শরীরের প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পানি পানের লক্ষণ।

 

অতিরিক্ত পানি পানের লক্ষণ ডিহাইড্রেশনের লক্ষণের মতোই। বেশি পরিমাণে পানি খেলে কি’ডনি মাঝে মাঝে পানি পরিশোধন করে পুনরায় শোষণ করতে ব্যর্থ হয়। ফলে বমি বমি ভাব, বমি এবং ডায়রিয়া হয়।

 

প্রয়োজনের তুলনায় কম পানি পান করলে কিংবা প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পানি পান করলে অর্থাৎ উভয় কারণেই মাথাব্যথা হতে পারে। পানি পান করলে কিডনি পানি শোধন করে র’ক্তে পানির পরিমাণ স্বাভাবিক রাখে।

 

প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পানি পান করবেন তখন কিডনির পক্ষে চাপ নিয়ে কাজ করতে হয়। বেশি বেশি অপ্রয়োজনীয় পানি ফিল্টারিং করার ফলে কিডনিতে চাপ তৈরি হয় যা হরমোনে প্রভাব ফেলায় শরীর ক্লান্ত ও অবসন্ন হয়ে পড়ে।

 

Check Also

৭৫ ভাগ ভ্যাকসিন ১০ দেশের দখলে, কড়া সমালোচনায় জাতিসংঘ মহাসচিব

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বিশ্বব্যাপী করোনা’ভাই’রাসের ভ্যাকসিন যেভাবে বিতরণ করা হচ্ছে তার কড়া সমালোচনা করেছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *