জনপ্রিয় টিকটক স্টারের করুণ মৃ’ত্যু……

ড্যাজহারিয়া শেফার জনপ্রিয় টিকটক স্টার। মাত্র ১৮ বছর বয়সে আ’ত্মহত্যা করেছেন। বহু ফলোয়ার তাঁর। সেই সঙ্গে ইনস্টাগ্রামেও ছিলেন তিনি। এছাড়া নিজের কসমেটিকস ব্র্যান্ড তৈরি করেছিলেন। প্রচুর বিক্রি ছিল। তাঁর

 

ব্র্যান্ডের লিপ কেয়ারের সব প্রোডাক্ট খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। শেফার টিকটকে ‘ব্যাক্সিগার্লডি’ নামে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন। কিন্তু এত সাফল্যের পরেও অবসাদে ভুগতেন তিনি। সোমবার ( ৮ ফেব্রুয়ারি) নিজের বাড়িতেই আ’ত্মহ’ত্যা করেন ১৮ বছর বয়সী এই টিকটক স্টার।

 

ড্যাজহারিয়া শেফারের টিকটক ভালোই চলছিলো তাঁর। জনপ্রিয়তাও তুঙ্গে। তবে কি কারণে তিনি আ’ত্মহ’ত্যা করলেন? এই প্রশ্নই এখন ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নয়েসের বাবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট

 

করে জানান, ” নয়েসের এভাবে মৃ’ত্যু’তে একেবারেই ভে’ঙে পড়েছি। ওর কিসের কষ্ট ছিল? একবার কেন আমাকে জানালো না ! না জানিয়েই কেন নিজেকে এভাবে শেষ করে দিল?” এর পর নয়েসের ফ্যানেরা সমবেদনা জানান

 

তাঁর বাবাকে। ড্যাজহারিয়া আ’ত্ম’হ’ত্যা করার আগে নিজের শেষ ভিডিও আপলোড করেন ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে। এবং লেখেন, “এটাই আমার শেষ ভিডিও”। তারপরেই নিজের ঘরে আ’ত্ম’হ’ত্যা করেন তিনি। জানা গিয়েছে কয়েক

 

মাস আগে ব্রেক-আপ হয়েছে তাঁর। এবং প্রেম ভে’ঙে যাওয়ার পর থেকেই অবসাদে ছিলেন এই টিকটক স্টার। বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে মেলা মেশা কমিয়ে দিয়েছিলেন। এমনকি টিকটক ভিডিও বানানোও কমে গিয়েছিল। কাউকে কিছু

 

না বলেই এভাবে আ’ত্মহ’ত্যার ঘটনায় ভে’ঙে পড়েছেন তাঁর পরিবারের লোকেরা। সেই সঙ্গে নেটিজেন জুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সেই সঙ্গে নেটিজেন জুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।সেই সঙ্গে নেটিজেন জুড়ে নেমে

 

 

Check Also

ভারতের মাদ্রাসার পাঠ্যক্রমে থাকবে বেদ, গীতা, রামায়ণ

প্রাচীন ভারতের জ্ঞান-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি চর্চা হিসেবে ভারতের মাদ্রাসার পাঠ্যক্রমে বেদ, গীতা, রামায়ণ পড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে দেশটির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *