প’লাতক কণ্ঠশিল্পী মিলা, যে কারনে খুঁ’জছে পুলিশ…….

সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির গায়ে এ’সিড হা’মলা’র অ’ভিযোগে দায়ের করা মা”মলায় কণ্ঠশিল্পী মিলা ইসলাম ও তার সহযোগী কি’মের বি’রুদ্ধে গ্রে’প্তারি প’রোয়ানা জা’রি করেছেন আ’দালত। জামিনে থাকা অবস্থায় ধার্য তারিখে

 

আদালতে হাজির না হওয়ায় তাদের বি’রুদ্ধে গ্রে’প্তারি প’রোয়ানা জারি করেন ঢাকার এ’সিড দ’মন ট্রাইবুনালের বি’চারক। গ্রে’প্তারি পরোয়ানা তামিলের বিষয়ে আজ শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত

 

কর্মকর্তা কাজী ওয়াজেদ আলী গণমাধ্যমকে বলেন, মিলা ও তার সহযোগী কিমকে গ্রে’প্তারের জন্য ত’ল্লাশি চলছে। বৃহস্পতিবার রাতেও মিলার মিরপুরের বাসায় ত’ল্লাশি চালাই, কিন্তু এখনও তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে। আশা করি, শিগগিরই তাদের গ্রে’প্তার করে আ’দা’লতে স’মর্পণ করতে পারব।

 

জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২ জুন সাবেক স্বামীর ওপর অ্যা”সিড নিক্ষেপের মা’ম’লায় সি’আ’ইডির তদন্তে অ”ভিযুক্ত হন সংগীত শিল্পী মিলা ও তার সহযোগী কিম। এরপর ২০২০ সালের ৩০ ডিসেম্বর সি’আইডি আদালতে চার্জশিট

 

দাখিল করে। পরবর্তীতে এ বছরের ২৮ জানুয়ারি ঢাকার অ্যা”সিড দ’মন ট্রাইব্যুনাল ওই চার্জশিট আমলে নিয়ে উভয় আ’সামি’র বি’রুদ্ধে গ্রে’প্তারি প’রোয়া’না ও প’লাতক থাকায় ক্রোকি পরোয়ানা জারি করেন। গত ৯ ফেব্রুয়ারি

 

 

আদালতের জা’রিকৃত গ্রে”প্তারি পরোয়ানা পল্লবী থানায় পৌঁছায়। এরপর থেকেই পল্লবী থানা পুলিশ অ’ভিযুক্ত মিলা ও তার সহযোগী কিমকে খুঁজছে। তাদের আবাসস্থল ও সম্ভাব্য অবস্থানে কয়েক দফা তল্লাশি চালিয়েও তাদেরকে এখনো গ্রে’প্তা’র করা যায়নি। পরিবারের দাবি, তারা কোথায় আছে এ সম্পর্কে তাদের ধারণা নেই।

 

উল্লেখ্য, মিলার সহযোগী কিম ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের একটি বাসা থেকে গ্রে”ফতার হয়ে কা”রাগারে যান। পরবর্তীতে জামিন নিয়ে আর আদালতে হাজিরা দেননি। অপরদিকে মিলা এই মা’মলার ১নং আ’সামি। তিনি এখন পর্যন্ত কখনই আ’দা’লতের মুখোমুখি হননি।

 

 

Check Also

বেলুনের মতো ফুলে গেছেন প্রিয়াঙ্কা!

খুবই মজার কাণ্ড! কখনো গাড়ির হর্ন, কখনো বা প্যারাসুট কখনো চকলেটবোম হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলিউড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *