হেলিকপ্টার কিনতে রাষ্ট্রপতির কাছে রহ’স্যময় লোন আবদার

সামর্থ্য নেই কিন্তু হেলিকপ্টার কেনার ইচ্ছা। প্রয়োজনের তাগিতে ইচ্ছা জাগলে তা বাস্তবায়ন ক’রতে হয়। তাই রাষ্ট্রপতির কাছে রহ’স্যময় লোন চাওয়ার মতো আজব আবদার ক’রেছেন এক ভারতীয় নাগরিক। ঘ’টনাটি ভারতের

 

মধ্যপ্রদেশের বরখেদা এলাকায় ঘ’টেছে। এ খবর রোববার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন প্র’কাশ করেছে।খবরে বলা হয়, ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে বরখেদা গ্রামের বাসিন্দা বাসন্তী বাঈ হেলিকপ্টার

 

কেনার ঋণ চেয়েছেন। এই ঋণ চেয়ে তিনি যে চিঠি রাষ্ট্রপতিকে লি’খেছেন তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছ’ড়িয়ে পড়েছে। প্র’তিবেদনে বলা হয়েছে, ওই গ্রামে বাসন্তীদেবীর কিছুটা চাষের জমি রয়েছে। সেখানে ফসল ফলিয়ে টেনেটুনে চলে তার। কিন্তু বেশ কয়েক বছর ধ’রে চাষ ক’রতে পারছেন না এই কৃষক।

 

বাসন্তীর অ’ভিযোগ, প্রতিবেশীর জমিতে থাকা রাস্তার ওপর দিয়ে বাসন্তীকে তার জমিতে যেতে হয়। কিন্তু প্রতিবেশী রাস্তা আ’টকে রাখায় নিজে’র জমিতে যেতে পারছেন না। অনুনয়-বিনয় করেও লাভ হয়নি। গ্রাম পঞ্চায়েতেরও

 

দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। তাতেও কোনো সুরাহা হয়নি। স্থা’নীয় থা’নাতেও অ’ভিযোগ জা’নান বাসন্তী। সেখান থেকে তাকে নিরাশ হয়ে আসতে হয়। শেষে তিনি ঠিক করেন রাষ্ট্রপতির কাছে সাহায্য চাইবেন। খবরে বলা হয়, এক

 

টাইপিস্টের সাহায্য নিয়ে রামনাথ কোবিন্দকে চিঠি লেখেন মধ্যপ্রদেশের বাসন্তী। সে চিঠি রাষ্ট্রপতির কাছে না পৌঁছালেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। স্থা’নীয় সংবাদমাধ্যমেও খবরটি ছড়িয়ে প’ড়ে। এরপরই ঘ’টনাটির

 

প্র’তিক্রিয়া জা’নান সেখানকার স্থা’নীয় বিধায়ক যশপাল সিং। তিনি জা’নান, মহিলার অ’ভিযোগ যদি সত্যি হয় তাহলে অবশ্যই তিনি সুবিচার পাবেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। তিনি সুবিচার পাবেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

 

 

Check Also

কিভাবে বুঝবেন আপনার শ’রীরে ক্যালসিয়ামের অভাব হয়েছে?

কয়েকটি কারণে বিশ্বা’স করা হয় যে শক্ত হাড়ের জন্য শুধু শি’শুদের দুধ খাওয়া দরকার। প্রাপ্তবয়স্ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *