Breaking News

লো’ভে পড়ে ৭ মাসের অ’ন্তঃস’ত্ত্বা স্ত্রীকে ১০০০ ফুট উঁচু থেকে ফেলে দিলেন স্বামী

সাত মাসের অ’ন্তঃস’ত্ত্বা স্ত্রী, আর কিছু দিন পর জন্ম দেবেন ফুটফুটে সন্তান। কিন্তু তা আর হল না। অ’ন্তঃস’ত্ত্বা সেই স্ত্রীকে ১০০০ ফুট উঁচু থেকে ধাক্কা দিয়ে খাদে ফেলে দিলেন পাষণ্ড স্বামী! মূলত লোভে পড়েই তিনি এই কাজ

 

করেছেন। বীমার টাকা হাতিয়ে নিতেই স্ত্রীকে এভাবে হ’ত্যা করেন তিনি। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গেছে নেটদুনিয়ায়। ২০১৮ সালের ঘটনা। দক্ষিণ–পূর্ব তুরস্কের মুগলা শহরের বাসিন্দা ৪০ বছরের হাকান আয়সাল

 

স্ত্রী সামরাকে নিয়ে তুরস্কের বাটারফ্লাই ভ্যালিতে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। সেখানে ১০০০ ফুট উচ্চতায় স্বামী–স্ত্রী একসঙ্গে সেলফি তোলে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটায়। এরপরই ঘটে ম’র্মা’ন্তিক কাণ্ড। স্ত্রী’কে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় পাষণ্ড স্বামী। মা’রা যান সামরা। এরপরই গ্রে’ফতার করা হয় হাকানকে।

 

মা”মলার ত’দন্তে বেরিয়ে আসে ঘটনার নেপথ্যের কারণ। ঘটনার কিছুদিন আগেই স্ত্রীর নামে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকার বীমা করিয়েছিলেন হাকান। একমাত্র নমিনি ছিলেন তিনি। বীমার শর্তানুযায়ী স্ত্রীর দু’র্ঘটনা’য় মৃ”ত্যু হলে পুরো টাকাটাই আসবে হাকানের হাতে। সেই টাকা আ’ত্মসাৎ করতেই স্ত্রী’কে হ”ত্যার পর দু’র্ঘটনা হিসেবে

 

চালানোর চেষ্টা করেছিলেন হাকান। আ’ইনজী’বীদের কথায়, ঘটনার দিন তিন ঘণ্টা সেখানে ছিল হাকান। গোটা এলাকা জনশূন্য হতেই স্ত্রী’কে ধা’ক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এরপরই বীমার টাকার জন্য আবেদন করেছিলেন তিনি। কিন্তু

 

তা খারিজ হয়ে যায়। তুরস্কের স্থানীয় আদালত হাকানকে কারাবাসের সাজা শুনিয়েছেন। সামরার পরিবার দাবি করেছিল, তাদের মেয়ের নাম করে একাধিক ঋণও নিয়েছিলেন হাকান। সেই ঋ’ণ শোধ করতেই সামরাকে হ”ত্যার অ’ভি’যোগ এনেছিল তার পরিবার। সূত্র: ইন্ডিয়া ডটকম

 

 

Check Also

কেউ বলতে পারে না নদীতে কালভা’র্ট কে বানাচ্ছে!

নবীগঞ্জে উপজে’লার বাউসা ইউনিয়নের নাদামপুর নামকস্থানে শাখাবরাক নদীতে পানি চলাচলের পথ ব’ন্ধ করে ব্য’ক্তিস্বার্থের জন্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *