শবনমের জন্য প্রস্তুত ফাঁ”সির মঞ্চ….

স্বাধীন ভারতের ইতিহাসের অংশ হতে যাচ্ছেন উত্তরপ্রদেশের আমরাহর বাসিন্দা শিক্ষিকা শবনম। স্বাধীন ভারতে শবনমই প্রথম মহিলা বন্দি যার ফাঁ’সির আদেশ হয়েছে এবং তা কার্যকর হতে যাচ্ছে। ইংরেজিতে ও ভূগোলে

 

স্নাতকোত্তর আমরোহার বাসিন্দা শবনমের ফাঁ”সির জন্য প্রস্তুত ফাঁ’সির মঞ্চ। ৫০ বছর আগে নারী কয়েদির ফাঁ”সির জন্য বিশেষ ঘর তৈরি হয়েছিল ভারতের মথুরার জেলখানায়। কিন্তু, এরপর থেকে সেই ঘরের ব্যবহার কোনোদিনই

 

করতে হয়নি। স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষে এসে প্রথমবার সেই ঘরের প্রয়োজন পড়েছে। আমরোহার বাসিন্দা শবনমের ফাঁ’সির জন্য প্রস্তুত মথুরার সেই ঘর। স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে এই প্রথমবার কোনো নারী অপরাধীর ফাঁ”সির সাজা

 

 

কার্যকর হতে চলেছে। জানা গেছে, শবনমের প্রাণভিক্ষার আর্জি খারিজ করে দিয়েছেন রাজ‌্যপাল এবং রাষ্ট্রপতি। ভারতীয় গণমাধ‌্যম বলছে, মৃ’ত‌্যু পরোয়ানা জারির পর সম্ভবত তার মৃ’ত‌্যু’দ’ণ্ড কার্যকর করা হবে। বর্তমানে রামপুর

 

 

জেলা সংশোধনাগারে আছেন শবনম। সংশোধনাগারের জেলার রাকেশ কুমার বর্মা জানিয়েছেন, ফাঁসির যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। নারীদের ফাঁ”সি দেওয়ার নিয়ম অনুসারে শবনমকে মথুরা জেলা সংশোধনাগারে স্থানান্তরিত

 

করার জন‌্য আমরোহা জেলা প্রশাসনকে আর্জি জানানো হয়েছে। ভারতের মধ‌্যে একমাত্র মথুরা জে’লেই মহিলাদের ফাঁ’সি দেওয়ার বন্দোবস্ত রয়েছে। আর সেই ফাঁ’সি দেবেন নির্ভয়াকা’ণ্ডের ফাঁ’সুরে পব’ন জ”ল্লাদ। মা’মলা সূত্রে জানা যায়, ইংরেজিতে ও ভূগোলে স্নাতকোত্তর করে গ্রামের একটি প্রাথমিক বিদ‌্যালয়ে পড়াতেন

 

শবনম। এর মধ‌্যে সেলিম নামের এক ব‌্যক্তির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। যা নিয়ে আপত্তি ছিল শবনমের পরিবারের। পরে ঘটনাক্রমে ২০০৮ সালে ১৪ এপ্রিল প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে নিজের বাবা, মা, দুই ভাই, দুই বৌদি এবং ১০ মাসের ভাইপোকে খু”ন করেন। প্রাথমিকভাবে শবনম দাবি করেছিল, অ’জ্ঞা’ত পরিচয়ে

 

দু’ষ্কৃ’তিকা’রীরা হা”মলা চালিয়েছে। যদিও পরে স্বীকার করেন, পরিবারের সদস‌্যদের তিনি মা’দক’জা’তীয় কোনো দ্রব‌্য মি’শ্রি’ত দু’ধ খাওয়ান। তারপর খু’ন করেন। ২০১০ সালে আমরোহার নিম্ন আদালত শবনম এবং সেলিমকে মৃ’ত‌্যু’দ’ণ্ডের সাজা দিয়েছিল। পরে এলহাবাদ হাই কোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টেও আবেদন করেছিল তারা। কিন্তু গত বছরের জানুয়ারিতে তা খারিজ হয়ে যায়।

 

 

Check Also

সন্তানকে বাঁশঝাড়ে ফেলে হাসপাতাল থেকে পা”লা’লেন তরুণী……

হা’সপাতা’লে স’ন্তান প্র’সবের এক দিন পর বাঁ’শঝা’ড়ে ফেলে গে’লেন এক মা। শি’শুটিকে স্থানীয়রা উ’’দ্ধার করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *