এক পাসপোর্টেই যেতে পারবেন ১৯১ দেশে

পাসপোর্ট ও ভিসা ছাড়া এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়া যায় না। ইচ্ছে করলেই তো আর বিনা অনুমতিতে যেকোনো দেশে যাওয়া সম্ভব নয়। তবে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কিছু পাসপোর্ট কাছে থাকলে ১০০টিরও বেশি দেশ

 

ঘুরতে পারবেন বিনা অনুমতিতে। আপনার কাছে যদি জাপানি পাসপোর্ট থাকে; তাহলে সর্বো’চ্চ দেশ ঘুরতে যাওয়ার সুযোগটি পাবেন। জাপানের পাসপোর্টধারী হলে যে কেউ বিশ্বের ১৯১টি দেশ ঘুরতে পারবেন বিনা ভিসায়।

 

আর এক্ষেত্রে জাপান এশিয়ার মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। ২০২১ সালে বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাসপোর্ট তালিকার প্রথমে রয়েছে জাপান। পর্যটক হলেই কেবল এ পাসপোর্ট দিয়ে আপনি ঘুরতে পারবেন ১৯১টি দেশে।

 

সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট: জাপানের পরই তালিকায় রয়েছে সিঙ্গাপুরের নাম। এ দেশের পাসপোর্টধারী হলে বিনা ভিসায় ঘুরতে যেতে পারবেন ১৯০টি দেশ। ১৯৬৩ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে সিঙ্গাপুর স্বাধীনতা লাভ করে। কিন্তু

 

তখনো তারা মালয়েশিয়ার অন্তর্ভুক্তই ছিল। পরে ১৯৬৫ সালে মালয়েশিয়া থেকে আ’লাদা হয় এবং স্বাধীন সার্বভৌম দেশ প্রতিষ্ঠা হয়। দক্ষিণ কোরিয়া ও জার্মানির পাসপোর্ট: জাপান ও সিঙ্গাপুরের পর যৌথভাবে তৃতীয় স্থানে রয়েছে

 

এশিয়ার দক্ষিণ কোরিয়া এবং ইউরোপের জার্মানি। এ দুই দেশের পাসপোর্টধারীদের বিনা ভিসায় ১৮৯টি দেশে ঘোরার অনুমতি আছে। এ দেশের পাসপোর্ট থাকলেই জার্মানরা ঘুরে আসতে পারেন আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল,

 

বলিভিয়া, কোস্টারিকা, ইন্দোনেশিয়া, মরক্কো, ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যের মতো দেশ। ইউরোপের পাসপোর্ট: জাপান ও সিঙ্গাপুরের মতো না হলেও ভিসা ছাড়াই বিশ্বের ১৮৮টি দেশ ঘুরতে পারবেন ইতালি, ফ্রান্স, লুক্সেমবার্গ ও

 

ফিনল্যান্ডের নাগরিকরা। পাঁচ নম্বরে রয়েছে ডেনমা’র্ক এবং অস্ট্রিয়া। ছয় নম্বর দখল করেছে সুইডেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, নেদারল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড। শুধু তা-ই নয়, ভিসা ছাড়া বেড়াতে যাওয়ার তালিকায় দশম স্থান পর্যন্ত

 

দখল করে রেখেছে ইউরোপের দেশগুলোই। একনজরে দেখে নিন বিশ্বের দামি পাসপোর্টগুলো কোন কোন দেশের।

এসব পাসপোর্ট থাকলে কয়টি দেশ ভ্রমণ ক’রতে পারবেন-

 

 

১. জাপনের পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৯১টি দেশে।

২. সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৯০টি দেশে।

৩. সাউথ কোরিয়া ও জার্মানির পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৯টি দেশে।

 

 

৪. ইতালি, ফিনল্যান্ড, স্পেইন, লাক্সামবার্গের পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৮টি দেশে।

৫. ডেনমা’র্ক ও অস্ট্রিয়ার পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৭টি দেশে।

৬. সুইডেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ডের পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে

১৮৬টি দেশে।

 

 

৭. সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, নরওয়ে, বেলজিয়াম, নিউজিল্যান্ডের পাসপোর্ট

দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৫টি দেশে।

৮. গ্রিস, মাল্টা, চেক রিপাবলিক ও অস্ট্রেলিয়ার পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৪টি

দেশে।

 

 

৯. কানাডার পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮৩টি দেশে।

১০. হাঙ্গেরির পাসপোর্ট দিয়ে যাওয়া যাবে ১৮২টি দেশে।

 

 

Check Also

ট্রেনের চাবি চু’রি, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের রিভারসেল হেন্ডেল (চাবি) চু’রির ঘ’টনা ঘ’টেছে। এতে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা থেমে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *