Breaking News

রাত ১০টার পর বাইরে গেলে ব্যবস্থা’

করোনাভা’ই’রাস সংক্র’ম’ণের হার আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে থাকায় বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ

থেকে ১৮ দফা নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, সরকারের

 

১৮ দফার মধ্যে রাত ১০টার পর অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে যাওয়া নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ও সিভিল প্রশাসন

মাঠে থাকবে। আজ সোমবার (২৯ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ১৮ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়।

 

এর মধ্যে ১১ নম্বর দফায় বলা হয়, অপ্রয়োজনীয় ঘোরাফেরা/আড্ডা বন্ধ করতে হবে। জরুরি প্রয়োজন

ছাড়া রাত ১০টার পর বাইরে বের হওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

 

বলেন, রাত ১০টার পরে বাইরে বের হওয়ার বিষয়টা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। আমরা অবশ্যই রাস্তাঘাটে

নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করব। আমাদের পুলিশ প্রশাসন এখানে কাজ করবে। জরুরি কাজ ছাড়া অপ্রয়োজনে

 

কেউ যাতে বাইরে না যায় সেটি আমরা নিশ্চিত করব। মোবাইল কোর্ট চলমান। তিনি আরও বলেন, আমরা

লক্ষ করছি যে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কয়েকটি ঢেউ এসে গেছে। বাংলাদেশের এই ঢেউটাকে আমরা দ্বিতীয়

 

ঢেউ বলতে পারি। কারণ আমরা আশঙ্কা করেছিলাম শীতের সময় অনেকটা বেড়ে যাবে। কিন্তু আমাদের

সতর্কতার কারণে সেটি সম্ভব হয়নি। হঠাৎ করে এখন গ্রীষ্ম আসছে এবং বেড়ে যাচ্ছে’। আগামী ১৪

 

এপ্রিল পহেলা বৈশাখ নিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা সমস্ত জনসমাগম সীমিত করব। যেখানে

উচ্চঝুঁ’কি’পূর্ণ এলাকাগুলো পুরোপুরি নিষিদ্ধ থাকবে। সাধারণ ছুটি দেয়ার কোনো চিন্তা-ভাবনা

 

সরকারের আছে কিনা জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এ পর্যন্ত আমাদের এ রকমের কোনো সিদ্ধান্ত

নেই, সাধারণ ছুটি দেয়ার ব্যাপারে এ পর্যন্ত কোনো আলোচনা হয়নি। ‘আমরা কাজ করেছি, সাংবাদিকরা

 

মাঠে ছিলেন, অনেকে আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন। অনেকে সতর্ক থাকায় এখন পর্যন্ত ভালো আছেন। সেক্ষেত্রে

আমাদের কার্যক্রম চলতে থাকবে। এখন পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বা ওই ধরনের চিন্তা-ভাবনা নেই। তবে

 

আমরা সতর্ক হলে এটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারব।’ গত বছরের মার্চ মাসের শুরুতে দেশে

করোনা’ভাই’রাসে আ’ক্রা’ন্ত রোগী প্রথম ধরা পড়ে। পরিস্থিতি ক্রম অবনতির দিকে যেতে থাকলে

 

২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এরপর দফায় দফায় ছুটি বাড়তে থাকে।

সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী টানা ৬৬ দিনের ছুটি ৩০ মে শেষ হয়। এদিকে আজ দেশে করোনা’ভাই’রাসে

 

আ’ক্রা’ন্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৫ জনের মৃ”ত্যু হয়েছে। এর মধ্যে মৃ”ত্যু হয়েছে ৮ হাজার

৯৪৯ জনের। এই সময়ে সং’ক্র’মণ ধরা পড়েছে আরও ৫ হাজার ১৮১ জনের শরীরে। দেশে এ পর্যন্ত

 

করোনার সং’ক্র’মণ ধরা পড়েছে ৬ লাখ ৮৯৫ জন। আজ সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ

বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গত জুলাইয়ে সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছিল ৪ হাজার ১৯ জন।

 

 

Check Also

একসঙ্গে মা-মেয়ের বিয়ে! বিস্তারিত জানুন

একসঙ্গে মা-মেয়ের বিয়ে! কারণ জানলে আপনিও সমর্থন জানাবেন! বয়স কেবল সংখ্যামাত্র। বিভিন্ন ক্ষেত্রেই এই কথাটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *