Breaking News

রাজধানীতে বা’ড়ছে সৌ’খিন শা’রী’রিক স’ম্পর্ক

আতিক হাসান (ছদ্মনাম)। পড়াশোনা করছেন একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। ক’রো’নার কারণে

হল ব’ন্ধ। তাই অগত্যা বাড়ি চলে যান। গ্রামের বাড়ি ঢাকার একদম পাশে। ঘণ্টা দুয়েকের পথ। লক

 

ডাউনের পুরোটা সময় ছিলেন বাড়িতে। কিন্তু বাড়িতে গিয়ে অস্থির হয়ে উঠে আতিক। দীর্ঘ দিন

শা’রীরিক সম্প’র্কের বাইরে তিনি। তাই লক ডাউন শেষ ‘হতেই চলে আসেন রাজধানীতে। রাত

 

কা’টান বনশ্রীর একটি বাসায়। আর পরদিন সকালেই বাড়ি চলে যান। মাসে এক দুইবার না যেতে

পারলে অস্থির হয়ে উঠেন তিনি। রাজধানী ঢাকায় এই রকম আতিকের সংখ্যা অনেক। তবে তারা

 

সকলেই ছদ্মবেশী।তাদের এমন সম্প’র্কের বি’ষয়ে একান্ত পরিচিত জন ছাড়া কেউ জা’নেন না। শা’রীরিক

সম্প’র্কের দিক থেকে তারা সৌখিন। আতিকের সাথে বলে জা’না যায়, একটা প্রেম করলে মাসে ভালই

 

টাকা খরচ হয়। রেস্টুরেন্টে গিয়ে খাবার খাওয়া, বাইরে ঘুরতে যাওয়া।খরচের শেষ নেই। কিন্তু মাসে দুই

তিন হাজার টাকা খরচ করলেই, জৈবিক চা’হিদা নিবৃত্তি করা যায়। চাইলে প্রে’মিক প্রে’মিকার মতো

 

সময়ও কা’টানো যায়। বাইরে ঘুরতে যাওয়া যায়।কারণ তারা কেউ পেশাদার যৌ’aন ক’র্মী নয়। এদের সবাই

পড়াশোনা করে। কেউ এই ধ’রণের কাজ করে একটু বাড়তি পয়সার আশায়। এতে করে ভাল করে চলতে

 

পারে। হাত খরচের কোন স’মস্যা হয় না। আবার কেউ আসে নিতান্ত শখের বশে।সেইসাথে শা’রীরিক

চা’হিদার বি’ষয়টি তো আছেই। ফলে এভাবে শখের বশে বা সৌখিনভাবে অনেকেই জড়াচ্ছেন শা’রীরিক

 

সম্প’র্কে। দিনে দিনে এমন সৌখিন শা’রীরিক সম্প’র্ক বাড়ছে। এখানে বাঁ’ধা ধ’রা কোন নিয়ম নেই।

আবার কেউ পেশাদারও না। কোন রকম স’ন্দে’হ করারও সুযোগ নেই। কারণ এখানে দু’জনই অনেকটা

 

কাছাকাছি ব’য়সের। পেশায় দু’জনই শিক্ষার্থী। অবশ্য চাকরিজীবী যে থাকেন না, এমনটা নয়। কিন্তু তারা

যে, অর্থের বিনিময়ে যৌ’aনতা ফেরি করে; এমনটা ভাবনার অতীত। আতিকের মতো এই রকম বেশ

 

কয়েকজনের সাথে কথা হয়। অবশ্য এদের কেউ কেউ এখন এসবে নেই। তার পরেও কথা হয়, সৌখিন

যৌ’aনতা নিয়ে। এমন শা’রীরিক সম্প’র্কের বি’ষয়ে। তারা জা’নান, অনেক তরুণ-তরুণী প্রেম ক’রতে

 

পারে না। আবার কেউ প্রেমের প্রতি বির’ক্ত। কিন্তু বিপরীত লি’’ঙ্গের প্রতি আক’র্ষণ কাজ করে। জৈবিক

চা’হিদারও একটি বি’ষয় থাকে।রাজধানীতে অনেক মে’য়েই রক্ষণশীল পরিবার থেকে আসে। তাদের

 

প্র’কাশ্যভাবে জৈবিক চা’হিদা নিবৃত্তের সুযোগ নেই। কিন্তু আক’র্ষণ ঠিকই কাজ করে। ফলে অনেকেই

গো’পনে এই ধ’রণের সম্প’র্কে জরায়। তবে এখানে টাকা হলেই সবার সাথে সম্প’র্ক করা যায় না। কারণ

 

সবারই একটা ব্য’ক্তিগত নি’রাপত্তার বি’ষয় থাকে। গো’পনীয়তা এখানে অনেক গু’’রুত্ব পূর্ণ। আর এটা

র’ক্ষাও করা হয়।ভাড়াটে প্রে’মিক-প্রে’মিকার ধারণা চীন, জাপানসহ এশিয়ার অনেক দেশেই প্রচলিত।

 

অবশ্য এ সকল দেশে যৌ’aন চা’হিদা মেটানোর বিকল্প সুযোগও অনেক। কিন্তু খোদ রাজধানী ঢাকায়

অনেকটা এই রকমভাবেই গড়ে উঠছে সৌখিন শা’রীরিক সম্প’র্কের মডেল। আর দিনে দিনে তা

বাড়ছেও।- বাংলা ইনসাইডার

 

 

Check Also

একসঙ্গে মা-মেয়ের বিয়ে! বিস্তারিত জানুন

একসঙ্গে মা-মেয়ের বিয়ে! কারণ জানলে আপনিও সমর্থন জানাবেন! বয়স কেবল সংখ্যামাত্র। বিভিন্ন ক্ষেত্রেই এই কথাটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *